bnp1_106501

জিয়াউর রহমান বাংলাদেশ-চীন বন্ধুত্বের এ্যাম্বাসেডর

বিডি রিপোর্ট 24 ডটকম > ‘বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান শাসনামলে বাংলাদেশ-চীনের মধ্যে সুসম্পর্ক স্থাপনের সূচনা হয়েছিল। তাকে বাংলাদেশ-চীন বন্ধুত্বের এ্যাম্বাসেডর বলা হয় বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসিচব মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর ।

তিনি বলেন, ‘জিয়াউর রহমান এই অঞ্চলের দেশগুলোর মধ্যে সুসম্পর্ক উন্নয়নকে প্রাধান্য দিয়েছিলেন। সেজন্য অর্থনৈতিক শক্তি তৈরির জন্য সার্ক গঠন করেছিলেন। বাংলাদেশ-চীনের সম্পর্ক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনও গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন। কিন্তু এখন তাকে সম্পূর্ণ রাজনৈতিক কারণে কারাগারে রাখা হয়েছে।’

ফকরুল ইসলাম বলেন, ‘এ অঞ্চলে শিক্ষা, সাংস্কৃতি, অর্থনীতি ও রাজনীতি পরস্পরের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। সেজন্য সব দিক দিয়ে দুই দেশের মধ্যে পারস্পরিক বাণিজ্য সহযোগিতা পূর্বশর্ত।’

জাতীয় প্রেস ক্লাব কনফারেন্স লাউঞ্জে মঙ্গলবার সকালে এক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এসব কথা বলেন। চীনের ৬৫তম প্রতিষ্ঠাবাষির্কী ও বাংলাদেশ-চীন ৩৯তম কূটনৈতিক সম্পর্ক শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজন করে বাংলাদেশ-চায়না ফেন্ডশিপ এ্যাসোসিয়েশন।