কক্সবাজারের কবি মানিক বৈরাগীর আত্নহত্যার সিদ্ধান্ত !

coxএম.শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া আশ্বাস ৩ মাসে বাস্তবায়ন না হওয়ায় ও শারীরিক যন্ত্রনা থেকে রেহাই পেতে মৃত্যৃর কোন বিকল্প না থাকায় তিনি আতœ হত্যার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কক্সবাজারের কবি সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিক কবি মানিক বৈরাগী।

তিনি একজন খ্যাত কবি ছাড়াও বাংলাদেশ ছাত্রলীগ চকরিয়া উপজেলা শাখার সাবেক সভাপতি ও কক্সবাজার জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সিনিয়র সদস্য এবং বঙ্গবন্ধু স্টাডি সার্কেলের সম্বনয়ক । তার দেওয়া বিবৃতি অনুযায়ী, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নৈতিক ও আর্দশবান কর্মী হিসাবে আমার (কবি সাইফুদ্দিন আহমেদ মানিক ) উপর বিগত বিএনপি- জামায়াত জোট সরকারের সাবেক যোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী নির্দেশে যে নির্মম পুলিশী নির্যাতন, কারা নিক্ষেপ, চকরিয়ার লক্ষ্যারচর জিয়া পরিষদের ক্যাডারেরা আমার পরিবারের উপর হামলা লুটপাট ও বসতবাড়ি ভাংচুরের বিবরণ  বিগত ২৫ মার্চ রাত ৮ টায়  প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনারসাথে সাক্ষাত করেন। সাক্ষাৎ পরবর্তী আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিদেশে চিকিৎসার আশ্বাস দেন এবং সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ প্রদান করেন। কিন্তু গত তিন মাস অতিক্রান্ত হওয়া সত্বেও আজো কোন কার্যকর পদক্ষেপ না হওয়া ও তার শারীরিক অবস্থার ক্রমাবনতীর জনিত মৃত্যু যন্ত্রণার সহন মাত্রা অতিক্রম করেছে।

তিনি দাবী করেনন, আগামী ১০ রমজানের মধ্যে কার্যকর করা না হলে পরবর্তী এক সপ্তাহের যেকোন মুহুর্তে পবিত্র রোজা মুখে রেখে শারীরিক মৃত্যু যন্ত্রণা থেকে রেহাই পাওয়ার জন্য স্বজ্ঞানে, স্বমস্তিস্ককে কক্সবাজার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে নিজেকে আতœ উৎসর্গ করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছি। এও বলতে চাই মুজিব আর্দশের নৈতিক সৈনিকরা আর্দশ বিকিয়ে না দিয়ে হাসতে হাসতে মৃত্যুকে বেছে নেব।

তিনি তার বিবৃতিতে লিখেন, আমার এই মৃত্যু উৎসব উপভোগ করার জন্য কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ও কক্সবাজার থেকে আওয়ামীলীগের নির্বাচিত সংসদ সদস্য গনকে সবিনয় অনুরোধ করছি।