শিরোনাম

ঝালকাঠিতে জলাবদ্ধতায় চরম দুর্ভোগে শীতলাখোলা এলাকার শতাধিক পরিবার

Jhalakati Pic.-1অমিত বনিক অপু, ঝালকাঠিঃ
ঝালকাঠিতে চার দিনের টানা বর্ষণে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে চরম দুর্ভোগে রয়েছে বাহের রোডস্থ শীতলা খোলা এলাকার শতাধিক পরিবার। হাটু সমান জলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে ঐ এলাকার জনসাধারণের। জলাবদ্ধতার কারণে স্কুলে যেতে পারছে না স্কুলছাত্ররা। বাসার ফ্লোরে, রান্না ঘরে জল ওঠায় কয়েকটি পরিবারের রান্না হয়নি ৪ দিন ধরে। তাদের হোটেল থেকে খাবার এনে খেতে হচ্ছে। প্রবল বর্ষণে ঘরের ভিতরে জল ঢোকায় ফ্রিজ, আলমিরাসহ আসবাবপত্র ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। শহরের ফায়ার সার্ভিসের পিছন থেকে শীতলাখোলা পর্যন্ত খালটি খনন না হওয়ায় এ জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে বলে ঐ এলাকার বাসিন্দাদের অভিযোগ। জলাবদ্ধতায় দুর্ভোগের শিকার শিক্ষক ধীরেন্দ্র মোহন দেবনাথ জানিয়েছেন, এলাকার কালী মন্দিরের সামনে থেকে বয়ে যাওয়া খালটিতে ময়লা আবর্জনা ফেলায় ভরাট হয়ে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। বিগত কয়েক বছর যাবৎ বর্ষা মৌসুমে এ দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ঐ এলাকার বাসিন্দা হাবুল দত্ত জানান, পানি সরানোর জন্য একটি পাইপ দিলেও পানি যাবার স্থান না থাকায় জলাবদ্ধতা থেকেই যাচ্ছে। পাইপ দেয়ায় কোন লাভ হয়নি। বৃষ্টি হলেই পানি জমে। এ বেপারে ঝালকাঠি পৌর প্যানেল মেয়র প্রনব কুমার নাথ (ভানু) জানান, পৌরসভার ইঞ্জিনিয়ার নিয়ে সরেজমিন উক্ত এলাকা পরিদর্শন করেছি। একশ্রেণির অসাধু লোকেরা খালের জায়গা দখল করে আছে। ময়লা আবর্জনা ফেলে খালটি ভরাট করে ফেলেছে ঐ এলাকার কিছু অসাধু লোকেরা। আমরা অবৈধ দখলদারদের তালিকা করে জেলা প্রশাসনের বরাবর দিয়েছি। সামনের শুকনো মৌসুমে ম্যাজিষ্ট্রেট ও পুলিশ নিয়ে অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ করে খাল পরিষ্কার করে নিষ্কাশনের ব্যবস্থা করব।