ইলিয়াস মোল্লাহর ফাঁসির দাবিতে বিহারিদের বিক্ষোভ

eliasবিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : রাজধানীর পল্লবীর কালশী বিহারি ক্যাম্পে আগুন দিয়ে ও গুলি করে শিশুসহ ১০ জনকে হত্যার প্রতিবাদে দিনভর বিক্ষোভ করেছে ক্যাম্পের বাসিন্দারা। স্থানীয় সাংসদ ইলিয়াস আলী মোল্লাহর নির্দেশে তার সমর্থকরা পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে তারা  অভিযোগ করেন। বিহারিরা, ইলিয়াস মোল্লাহ ও তার সহযোগীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়ে রোববার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত একটানা বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেন।

এদিকে বিহারি ক্যাম্পের বাসিন্দারা লাশগুলো হাসপাতাল থেকে নেওয়ার পর ঘটনাস্থলে প্রধানমন্ত্রীর উপস্থিতি ও সান্ত্বনা কামনা করেন। প্রধানমন্ত্রী না গেলে তারা লাশ নিয়ে বিক্ষোভ করারও হুমকি দেন এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের দিকে যাবেন বলে জানান।

রোববার সকাল থেকে মাথায় কালো ও সাদা কাপড় বেঁধে কালশী এলাকার ক্যাম্পের আশপাশে বিক্ষোভ মিছিল করেন আটকে পড়া কয়েক শ বিহারি। সকালে শুরু হয়ে বিকেল পর্যন্ত একটানা এই বিক্ষোভ চলে। তবে ঘটনাস্থলে বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন থাকায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই ছিল।

স্ট্র্যান্ডেড পাকিস্তানিজ জেনারেল রিপ্যাট্রিয়েশন কমিটির সভাপতি নিজামুদ্দিন সমাবেশে বলেন, ‘লাশগুলো আনার পর  প্রধানমন্ত্রী যদি আমাদের ক্যাম্পে আসেন, আমরা  নির্যাতনের ঘটনাগুলো তাকে জানাতে পারব। তিনি না এলে আমরা লাশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে যাব।’

কমিটির প্রচার সম্পাদক খোরশেদ আলম বলেন, ‘কালশী বিহারি ক্যাম্পে হত্যাকাণ্ডের জন্য সাংসদ ইলিয়াস মোল্লাহ সম্পূর্ণভাবে দায়ী। তারই সশস্ত্র ক্যাডাররা ক্যাম্পে আগুন দিয়ে ও গুলি করে শিশুসহ ১০ জনকে হত্যা করেছে।’  বিক্ষোভ মিছিলটি ক্যাম্পের বাইরে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ তাতে বাধা দেয়।

উল্লেখ্য, শবে বরাতের রাতে পটকা ফোটানোকে কেন্দ্র করে শনিবার সকালে দুর্বৃত্তদের দেওয়া আগুনে ও গুলিতে এক শিশুসহ ১০ জন বিহারি নিহত হন। এই ঘটনায় বিহারি ক্যাম্পে উত্তেজনার পাশাপাশি আতঙ্ক বিরাজ করছে।

– See