উর্দি ছাড়া একনায়কতন্ত্র চলছে: ফখরুল

fakrul-01বিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : দেশবাসী এখন উর্দি ছাড়া একনায়কতন্ত্র দেখছে বলে মন্তব্য করেছেন  বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফের বক্তব্যের সমালোচনা করে তিনি বলেছেন, আগে আমরা উর্দি পড়া একনায়কতন্ত্র দেখেছি। এখন উর্দি ছাড়া একনায়কতন্ত্র দেখছি।  সাদা পোশাকধারী এই সরকার গোটা দেশকে সন্ত্রাস, ত্রাসের রাজত্ব ও মৃত্যুকূপে পরিণত করেছে। আজ দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা  শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৩তম শাহাদত বার্ষিকী উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা দল আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে মির্জা আলমগীর বলেন,  প্রধানমন্ত্রী গডফাদারদের পক্ষে কথা বলছেন। যে সংসদে প্রধানমন্ত্রী এই ধরনের বক্তব্য দেন সেখানে ইনসাফ আশা করা যায় না। প্রয়োজনে ওসমান পরিবারকে দেখাশোনা করব’ এই ধরনের বক্তব্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী তার মুখোশ উন্মোচন করছেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। মির্জা আলমগীর বলেন, আওয়ামী লীগ মুখে বললেও তারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না। তারা যে মুক্তিযুদ্ধের কথা বলে তার মূলকথা হলো গণতন্ত্র। কিন্তু এই দলটি একের পর এক ব্যর্থ হয়েছে। মানুষের খাদ্য, বস্ত্র ও নিরাপত্তা দিতেও ব্যর্থ হয়েছে। পঞ্চদশ সংশোধনীর মাধ্যমে আওয়ামী লীগ দেশে একদলীয় শাসনে পরিণত করতে চায় বলেও মন্তব্য করেন তিনি। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন,  সারা দেশে বিরোধী দলের হাজার হাজার নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা  দেয়া হয়েছে। আর এর মাধ্যমে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী চুটিয়ে ব্যবসা করছে। ইতিমধ্যে এর বিরুদ্ধে সারা দেশে জনমত তৈরি হয়েছে। মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা ৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ করেছেন। এখন হয়তো আর মুক্তিযুদ্ধ করতে পারবেন না। তবে তরুণদের একটি যুদ্ধের জন্য আপনারা উৎসাহ যোগাতে পারেন। তিনি নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনের প্রস্তুতি নিতে তরুণদের প্রতি আহ্বান জানান। সংগঠনের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) এম হাফিজউদ্দিন আহমেদ বীরবিক্রম, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান সৈয়দ মো. ইবরাহীম, মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব আবদুস সালাম, যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।