মানিকগঞ্জে অস্ত্রসহ অপহরন চক্রের সদস্য গ্রেফতার

grefterমানিকগঞ্জ প্রতিনিধি :
মানিকগঞ্জের  সিংগাইরে অপহরনচক্রের এক সদস্যকে পাইপগানসহ গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত অপহরনকারী সাভার উপজেলার আনন্দপুর গ্রামের দলিল উদ্দিনের পুত্র ফাত্তার মোহাম্মদ (২৮)। অপহরনকারীকে উপজেলার বাস্তার আব্দুল ওহাব হোসেনের ভাড়া বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। পুলিশ এসময় অপহরনের স্বীকার তোপাজ্জল হোসেন মানিক নামে একজনকে উদ্ধার করে। তোপাজ্জল কুমিল্লার হাসনাবাদ গ্রামের কামাল উদ্দিনের পুত্র।

শনিবার সকাল ৯ টার দিকে উপজেলার ধল্লা- বাস্তা বাসস্ট্যান্ড এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।

তোপাজ্জল হোসেন মানিক জানান, প্রবাসে যাবার জন্য গ্রামের বাড়ি থেকে রাজধানী ঢাকাতে একটি মেসে থাকি। তারই সুবাদে ফাত্তার সাথে পরিচয় হয়। সে আমাকে বিভিন্ন সময় প্রবাসে যাবার সুযোগ করে দিবে বলে প্রলোভন দেখায়। পরে শুক্রবার সকালে আমাকে ঢাকা থেকে এনে একটি বাড়ি আটক রেখে আমার কাছে ১০ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবী করে। আমার কাছে কোন টাকা পয়সা নেই জানালে তারা আমার বাড়িতে বড় ভাইয়ের নিকট ফোনে জানান আমি তাদের হাতে বন্দি টাকা না দিলে আমাকে মেরে ফেলবে। পরে রাতে তারা ঘুমিয়ে পড়লে আমি ঘরের বাহিরে গিয়ে স্থানীয় লোকজনদের ঘটনাটি খুলে বলি। সকালে স্থানীয় লোকজনওই বাড়িতে হানা দিয়ে আমাকে উদ্ধার করে।

সিংগাইর থানার ওসি (তদন্ত) শাহজাহান ভ’ইয়া জানান,ফাত্তাহ দীর্ঘ দিন যাবত রাজধানীর আশেপাশ থেকে অপহরন করে পরে তাদের মুক্তিপনের বিনিময়ে আবার ছেড়ে দেয়। শুক্রবার সকালে লোকজন তাকে আটক করে। খবর পেয়ে পুলিশ তার ভাড়া বাড়ি তল্লাশি চালিয়ে একটি পাইপগান, পাইপগান তৈরীর বিভিন্ন সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি অস্ত্র মামলা ও অপহরনরে দায়ে তোপাজ্জল হোসেন বাদী হয়ে আরেকটি মামলা দায়ের করেন। রিমান্ড  চেয় আসমীকে আদালতে পাঠানো হবে। তবে অপহরনকারী ফাত্তা আরো বিভিন্ন অপকর্মে লিপ্ত কি না তা যাচাই করা হচ্ছে।