সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষিত: শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

jamalgonj-manobbondon-01অরুন চক্রবর্তী, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ঃ
সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জে পঞ্চম শ্রেণী পড়–য়া স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় ধর্ষনকারী জুয়েলের শাস্তির দাবীতে মহিলা পরিষদ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে। এতে এলাকার সর্বস্তরের লোকজন সংহতি জানিয়ে অংশ নেন। ৫ জুন বিকাল  ৪টা থেকে ৫ টা পর্যন্ত  ঘন্টা ব্যাপী জামালগঞ্জ রেষ্ট হাউজ ও থানার গেইট সংলগ্ন স্থানে এই মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। জানা যায়, জামালগঞ্জ উপজেলার ফেনারবাক ইউনিয়নের কাশীপুর গ্রামের দিন মজুর জোতিশ তালুকদারের ৫ম শ্রেনীতে পড়–য়া কন্যাকে বুধবার দুপুরে হাত্তরে জোর পূর্বক ধর্ষন করে একই গ্রামের ধর্ষক জুয়েল (৩০)। ঘটনার পর ধর্ষিতার পরিবার থানায় আসতে চাইলে ধর্ষকের পক্ষের কয়েকজন তাদের বাধা প্রদান করে ও ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। ধর্ষনের ঘটনায় ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে জুয়েলকে আসামী করে জামালগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন। ঘটনার ২ দিন অতিবাহিত হলেও ধর্ষক জুয়েল এখনো ধরা ছোয়ার বাইরে। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে ধর্ষনকারীর শাস্তির দাবীতে মহিলা পরিষদের আয়োজনে জামালগঞ্জে মানববন্ধন পালিত হয়। মানববন্ধনে জামালগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা এসে একাত্মতা ঘোষনা করেন।মানববন্ধন কর্মসূচীতে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি ডা: শেখ আয়েশা বেগম, মাধবী পাল, দীপশ্রী তালুকদার, খালেদা আক্তার রৌশন,বেসরকারী সংস্থা আইডিয়ার ওয়াদুদ ফয়সল ও ফাহমিদা আক্তার প্রমুখ। বক্তারা বলেন, আমাদের জামালগঞ্জ অত্যান্ত শান্ত প্রিয়,এই শান্ত প্রিয় জামালগঞ্জবাসীর গায়ে যারা ধর্ষনের মত কালি লোপন করেছে ও যারা মদদ দিচ্ছে তাদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। বক্তারা হুশিয়ারী উচ্চারন করে বলেন,ধর্ষনকারী ও তাদের মদদাতাদের গ্রেফতার না করা পর্যন্ত রাজপথে থেকে আন্দোলন চালিয়ে যাবার ঘোষনা দেন। ধর্ষনকারী ও তাদের মদদদাতাদেরকে যদি আইনের আওতায় না আনেন তাহলে শান্ত প্রিয় জামালগঞ্জে আরো ধর্ষনের মত ঘটনা ঘটবে বলে বক্তারা উল্লেখ করেন। মানববন্ধন শেষে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ জামালগঞ্জ উপজেলার নারী নেত্রীরা সর্বস্তরের জনগনকে সাথে নিয়ে ধর্ষক ও তাদের মদদ দাতাতের শাস্তির দাবীতে একটি র‌্যালী করে। র‌্যালিটি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আতিকুর রহমান বলেন, ধর্ষনের ঘটনায় ধর্ষিতার বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা রুজু করা হয়েছে। ধর্ষক জুয়েলকে গ্রেফতারের অভিযান অব্যাহত আছে।##