সুনামগঞ্জে দখলবাজদের কবল থেকে টেকেরঘাট খনিজ প্রকল্পের শত কোটি টাকার ভূমি উদ্ধার

Sunamganj-tekherghat-pic-01অরুন চক্রবর্তী, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :
সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার টেকেরঘাট খনিজ প্রকল্পের শতকোটি টাকার সম্পত্তি থেকে অবৈধ দখলবাজদের উচ্ছেদ করেছে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় দুই শতাধিক আইন রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের নিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোলায়মান, ম্যাজিস্ট্রেট বিশ্বজিৎ পাল ও বিসিআইসির যৌথ নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় প্রভাবশালীদের তৈরি ৪০টি কয়লার ডিপোঘর গুড়িয়ে দেওয়া হয়। উল্লেখ্য গত এক দশক আগে সীমান্তবর্তী টেকেরঘাট খনিজ প্রকল্পের কার্যক্রম সরকার বন্ধ করে দিলেও প্রকল্পের কয়েক শ’ কোটি টাকার ভূসম্পত্তি স্থানীয় প্রভাবশালীরা দখল করে কয়লার ডিপো হিসেবে ব্যবহার করে আসছিল। এতে সরকার মোটা অংকের রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছিল।

টেকেরঘাট খনিজ প্রকল্প সূত্রে জানা যায়, ১৯৮নং বড়ছড়া মৌজার ৫০ নং খতিয়ানে প্রকল্পের প্রায় ৩৩ একর জমি রয়েছে। এসব জমিতে প্রভাবশালীরা স্থায়ী ঘরবাড়ি, দোকানকোটাসহ কয়লার ডিপো তৈরি করে বাণিজ্যিক হিসেবে ব্যবহার করে মাসে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। গত ২০১০ সনে খনিজ প্রকল্প স্থানীয় ব্যবসায়ী আব্দুল কুদ্দুছকে তিন বছরের ইজারা দিলেও তিনি গত এক বছর ধরে অবৈধভাবে দখল করে আছেন। সম্প্রতি এই জমির বিপরিতে জাল দলিল তৈরি করে তিনি মালিকানা দাবি করলে খনিজ প্রকল্পের সংশ্লিষ্টরা সরকারি ভূমি উদ্ধারে তৎপর হন। অবৈধ দখলদার আব্দুল কুদ্দুছ সুনামগঞ্জ জেলা যুগ্ম জজ আদালতে তাদেরকে উচ্ছেদ না করতে আবেদন করলে আদালত তাদের আবেদন খারিজ করে দেন। ফলে সংশ্লিষ্টরা জমি উদ্ধারে তৎপর হন।

এরই প্রেক্ষিতে খনিজ প্রকল্প ৩৩ একর ভূমির মধ্যে ২০ একর ইজারা দেবার জন্য দরপত্র আহবান করলে মেসার্স নাদিম এন্টারপ্রাইজ ৭৪ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকায় দুই বছরের জন্য ইজারাপ্রাপ্ত হলেও দখলদারদের কারণে দখল নিতে পারছিলেন না। উচ্ছেদ অভিযানে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ছাতক সিমেন্ট কোম্পানী লিঃ জিএম (এম.টি.এস) মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, হিসাব বিভাগীয় প্রধান অমল কান্তি পাল ও তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনিসুর রহমান প্রমুখ ।