র‌্যাবকে জমি দেয়া নিয়ে সরকারের সিদ্ধান্ত বদল

25131_rbবিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : ঢাকার অদূরে কামরাঙ্গীরচরে বুড়িগঙ্গা নদীর পারে র‌্যাব-১০-এর দপ্তর করার জন্য দেয়া ৭ একর জমির বরাদ্দ বাতিল করা হয়েছে। আজ সচিবালয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। র‌্যাবকে তাদেও দপ্তরের জন্য অন্য জায়গায় জমি বরাদ্দ দেয়া হবে। নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান বলেন, গতকাল পাঁচজন মন্ত্রী ওই এলাকা সরেজমিনে দেখেছেন। এরপর পর্যালোচনা করে মনে হয়েছে, এ জায়গাটি বরাদ্দ দেয়া হলে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেল উদ্ধারকাজ বাধাগ্রস্ত হবে। এ জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী মোশাররফ হোসেন। এ সভায় নৌমন্ত্রী ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ, স্থানীয় এমপি হাজি মোহাম্মদ সেলিম। কামরাঙ্গীরচরের এই জমি ঢাকা জেলা প্রশাসনের বরাদ্দ নিয়েছিল র‌্যাব। দীর্ঘমেয়াদি বন্দোবস্তের সেলামি বাবদ ৯৮ লাখ ১৮ হাজার ১৩৮ টাকার বিনিময়ে র‌্যাবকে এই জমি দেয়া হয়। দাতা হিসেবে বন্দোবস্ত দলিলে স্বাক্ষর করেন ঢাকা জেলা প্রশাসক। অন্যদিকে স্বরাষ্ট্র সচিবের পক্ষে দলিলে স্বাক্ষর করেন র‌্যাব-১০-এর পরিচালক এস এম কামাল উদ্দিন। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় ২০০৪ সালে র‌্যাব এই সংক্রান্ত প্রস্তাব দিলে ভূমি মন্ত্রণালয় ২০০৫ সালে তা অনুমোদন দেয়। ২০০৭ সালে তৎকালীন সরকার জমির দখল র‌্যাবকে বুঝিয়ে দেয়। লালবাগ-কামরাঙ্গীরচরের মাঝ দিয়ে প্রবাহিত বুড়িগঙ্গার শাখা নদীর ওপর ওই জমি ভবন তৈরির জন্য বরাদ্দ দেয়ার সমালোচনা করে আসছিলেন পরিবেশবাদীরা।