সরকার দেশকে সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্যে পরিণত করেছে : শিবির

sgবাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবিরের সেক্রেটারী জেনারেল আতিকুর রহমান বলেন, সরকারের যখন রাষ্ট্রের নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথা, তখন তারা তা না করে উল্টো প্রত্যেক নাগরিকের জীবনকেই নিরাপত্তাহীন করে তুলেছে। স্বয়ং সরকারই দেশকে সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্যে পরিণত করেছে।

তিনি আজ ছাত্রশিবির ঢাকা জেলা উত্তরের সাথী শিক্ষাশিবিরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। রাজধানীর এক মিলনায়তনে দিনব্যাপী এই শিক্ষাশিবির অনুষ্ঠিত হয়। জেলা সভাপতি মো. আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে শিক্ষাশিবিরে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ছাত্রশিবির ঢাকা বিশ্ববিদালয় শাখার সভাপতি মাহবুবুল আলম।

শিবির সেক্রেটারী জেনারেল বলেন, অবৈধভাবে সন্ত্রাসী তৎপরতার মাধ্যমে ক্ষমতায় আসার কারণে আওয়ামীলীগ সন্ত্রাস বন্ধে কিছুই বলছে না। উল্টো রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দকে খুন ও গুম করতে দলীয় সন্ত্রাসীদের ব্যবহার করছে। র‌্যাব-পুলিশকে দলীয়করণ করে আওয়ামীলীগ যে ধ্বংসের বীজ বোপন করেছে, তার ফলে রাষ্ট্রের স্বার্বভৌমত্ব আজ হুমকির মুখে পড়েছে। সরকারি নির্দেশনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বেআইনি কাজে নিয়োজিত করার কারণে এখন তারা বেপরোয়া হয়ে পড়েছে।

তিনি বলেন, জননিরাপত্তা নিশ্চিত করার বিষয় যখন সর্বোচ্চ গুরুত্ব পাওয়ার দাবি রাখে, তখনও সরকার রাজনৈতিক দল দমনে ব্যস্ত। দেশের বিভিন্ন জেলায় জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার ও নির্যাতন করা হচ্ছে। অবৈধভাবে ক্ষমতায় আসা সরকার ক্ষমতায় টিকতে অবৈধ পথ ধরেই এগুচ্ছে। এখন দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই সরকারের মোকাবেলা করতে হবে। অন্যথায় বাংলাদেশে আইনের শাসন সম্পূর্ণরুপে নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে।

তিনি শিবিরের সাথীদের উদ্দেশ্যে বলেন, দেশের এই অবস্থায় আপনাদের যেমন আন্দোলনের মাধ্যমে ভূমিকা রাখতে হবে, তেমনিভাবে চলমান সঙ্কট উত্তরণ শুধু নয়, দেশকে সঠিক পথে সামনের দিকে এগিয়ে যাওয়ার চিন্তাও করতে হবে। ছাত্রজনতার আন্দোলনে আওয়ামী সরকারের পতন সময়ের ব্যাপার মাত্র। কিন্তু এ ধরণের কোন ফ্যাসিষ্ট শাসক যেন আর কখনো অবৈধভাবে ক্ষমতায় বসে দেশকে নিয়ে ছিনিমিনি না খেলতে পারে, সেজন্য ভূমিকা পালন করতে হবে। নিজেদেরক দেশ-জাতির প্রয়োজনকে সামনে রেখে তৈরির পাশাপাশশি আপামর জনসাধারণকে দেশের সার্বিক পরিস্থিতি সম্পর্কে সচেতন করে তুলতে হবে।