দিনাজপুরসহ সমন্বিত জেলা দুদক কার্যালয়ে ৬৯ অভিযোগ অনুসন্ধান

Dinajpurমো.নুরুন্নবী বাবু.দিনাজপুর প্রতিনিধি :

দুদক দিনাজপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয় থেকে প্রায় ২ শতাধিক প্রাপ্ত অভিযোগ অনুসন্ধানের জন্য অনুমোদন চেয়ে দুর্নীতি দমন কমিশন সদর দপ্তরে অভিযোগ গুলো প্রেরণ করা হয়েছে। ৬৯টি অভিযোগ অনুসন্ধান ও ৯৬টি মামলা তদন্ত কার্যক্রম চলছে।

দিনাজপুর সমন্বিত দুর্নীতি দমন কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোঃ আব্দুল করিম এই প্রতিনিধি নুরুন্নবী বাবুকে জানান, তার কার্যালয়ে বর্তমানে দুদকের দায়েরকৃত ৯৬টি মামলার তদন্ত কার্যক্রম চলছে। মামলাগুলো মধ্যে রয়েছে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুর্নীতি, ক্ষমতার অপব্যবহার, অর্থ আত্মসাত ও সরকারি কার্যক্রমে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ। এছাড়া জনসাধারণের কাছ থেকে ঘুষ গ্রহণ, ঘুষ প্রদান ও সহযোগিতা করার অভিযোগও রয়েছে। ঘটনাগুলো  এই  কার্যালয়ের  অধিনস্থ  দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও, পঞ্চগড় ও নীলফামারী জেলা অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

অপরদিকে দুদক সদর দপ্তরের অনুমোদন সাপেক্ষে ৬৯টি অভিযোগের অনুসন্ধান কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ২১টি অনুসন্ধান কার্যক্রম শেষ করে মামলা দায়ের জন্য দুদক সদর দপ্তরে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। অনুমোদন প্রাপ্তির সাপেক্ষে অনুসন্ধানকৃত অভিযোগ গুলোর বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় দুদকের কর্মকর্তাগণ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করবেন।

এছাড়া চলতি বছর গত ৪ মাসে ৩টি মামলা তদন্ত শেষে অভিযোগ পত্র এবং ৩টি মামলার চূড়ান্ত পত্র আদালতের পেশ করা হয়েছে। অনুসন্ধান শেষে সদর দপ্তরের অনুমোদন প্রাপ্ত হয়ে ৫টি মামলা সংশ্লিষ্ট থানায় দায়ের করা হয়েছে।

গত মাসে দিনাজপুর স্পেশাল জজ আদালতে দুদকের দায়েরকৃত ২টি মামলা বিচার শেষে আসামীদের বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। বর্তমানে ৪টি জেলার দুর্নীতির অভিযোগে দায়েরকৃত ১১০টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে।

তিনি জানান, গত বছর নভেম্বর মাসের দুদর সদর দপ্তরের জারিকৃত সার্কুলার অনুসারে এখন নতুন করে কিছু অপরাধের মামলা দুদক অনুসন্ধান, মামলা দায়ের ও তদন্তের দায়িত্ব পেয়েছে। এ সব অভিযোগের মধ্যে রয়েছে জনগণের প্রতারণার মাধ্যমে জাল দলিল, ডকুমেন্ট ও অন্যান্য মূল্যবান কাগজপত্র সৃষ্টির এবং ভূয়া দলিলপত্র সৃষ্টি, সম্পাদনের অভিযোগে অভিযোগ প্রাপ্ত হলে দুদক ওই সব বিষয়ে অনুসন্ধান করে মামলা দায়ের প্রক্রিয়া শুরু করেছে। তিনি এই ৪ টি জেলার দুর্নীতি প্রতিরোধে তার কার্যালয়ে জনবল বৃদ্ধি করার প্রয়োজনীয়তা উল্লেখ করেন। ##