পার্বতীপুরে তসদিককৃত সিলের স্থানে লেখা সত্যায়িত!

Dinajpurবদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
পার্বতীপুর উপজেলার চন্ডিপুর ইউনিয়নের কালিবাড়ী মৌজার অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করার লক্ষে গত ২০মে থেকে তসদিক শুরু হয়েছে। তবে মৌজা বরাদ্দকৃত অফিসার সময়মত যোগদান না করায় পার্বতীপুর সহকারী সেটেলম্যান্ট কর্মকর্তা আঃ কাদের চৌধুরী কৌশলে তসদিক করছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে তসদিককৃত সিলের লেখার স্থানে লেখা রয়েছে সত্যায়িত!

অভিযোগে জানাযায়, জমি রেকডের বইয়ে ও কৃষকের বা জমির প্রকৃত মালিকের পর্চায় স্বাক্ষরকৃত স্থানে সিলে লেখা থাকে তসদিক অফিসার বা তসদিককৃত সিলে অফিসারের নাম ও পদবী। আজ বৃহষ্পতিবার সরজমিনে দেখা গেছে পার্বতীপুর সহকারী সেটেলম্যান্ট কর্মকর্তা আঃ কাদের চৌধুরী নিজেই কালিকাবাড়ী মৌজা তসদিক করছেন। তবে তসদিককৃত সিলের স্থানে সত্যায়িত লেখা আছে। সিলের নিচে সত্যায়িত ব্যক্তি আব্দুল কাদের চৌধুরী, তসদিক অফিসার ও রাজস্ব কর্মকর্তা পার্বতীপুর, দিনাজপুর। এদিকে, গতকাল বৃহষ্পতিবার কয়েকটি পত্রিকায় ‘চাকরীতে যোগদানের আগেই কাজে নোটিশের অভিযোগ’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এর আগের দিন বুধবার বিকেলে দিনাজপুর জোনাল সেটেলম্যান্ট অফিসার গোলাম মোস্তফার কাছে এ বিষয়ে মোবাইল ফোনে যোগদানের আগেই কাজের সিপিসি নোটিশ বিষয়টি অবগত করা হয়। ফলে টনক নড়ে সংশ্লিষ্ট বিভাগের। এরপর বিষয়টি ফাঁস হওয়ায় তড়িঘড়ি করে তসদিককৃত কর্মকর্তার নাম বাতিল করে পার্বতীপুর সহকারী সেটেলম্যান্ট কর্মকর্তা আঃ কাদের চৌধুরী নিজেই কৌশলে তসদিক করণের কাজ শুরু করেন বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে কালিকাবাড়ী মৌজা থেকে আসা কৃষকদের মাঝে এ নিয়ে কৌতুহল সৃষ্টি হয়েছে। এর আগে সব অফিসারের সিলে তসদিককৃত লেখা আছে। আর এ অফিসার তসদিককৃত এর স্থানে সিলে লেখা রয়েছে সত্যায়িত। এব্যাপারে আজ বৃহষ্পতিবার বিকেল পৌঁনে ৫টার দিকে পার্বতীপুর সহকারী সেটেলম্যান্ট কর্মকর্তা আঃ কাদের চৌধুরী নিকট মোবাইল ফোনে তসদিককৃত স্থানে সত্যায়িত লেখা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঠিক আছে আমার কর্তৃপক্ষের নিকট শুনে বিষয়টি লেখা ঠিক আছে কি না তা জেনে সমাধানের ব্যবস্থা নেব। উল্লেখ্য, উক্ত মৌজাটি পঞ্চগড় জেলা থেকে আগত মহিবুর রহমান নামের এক উপ-সহকারী সেটেলম্যান্ট অফিসার যোগদান করে তসদিক করার কথা ছিল বলে শোনা গেছে। এছাড়াও উপজেলার দক্ষিণ হরিরামপুর মৌজায় উপ-সহকারী সেটেলম্যান্ট অফিসার মাহাবুবর রহমান ও কিসমতপুর মৌজায় উপ-সহকারী সেটেলম্যান্ট অফিসার ইসাহাক আলী গত ২০ মে থেকে তসদিক কাজ শুরু করেছেন।