ভোলার ইলিশা ফেরী ঘাটের ল্যান্ডিং পানিতে ডুবে থাকায় ভোগান্তিতে যানবাহন ও যাত্রীরা

Fary Gatফরহাদ হোসেন, লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি: ভোলার ইলিশা ফেরী ঘাটের ল্যান্ডিং জোয়ারের পানিতে ডুবে থাকায় ভোগান্তিতে পরেছেন যাত্রীরা। প্রতিদিন এই রুটে শত শত যাত্রী যাতায়াত করেন। এই রুটে ভোলা থেকে লক্ষীপুর, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার সহ বিভিন্ন জেলায় যাতায়াতের একমাত্র মাধ্যম। ভোলা লক্ষীপুর রুটের ইলিশা ফেরী ঘাটটির ল্যান্ডিং জোয়ারের পানিতে ডুবে থাকায় যাত্রীরা পল্টুন থেকে ঘাটে আসতে পারছেন না। বিশেষ করে শিশু ও মহিলাদের বেশী ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে। অনেক সময় এখানে হাটু থেকে কোমর পর্যন্ত পানি থাকে, যা দিয়ে পারাপার করার সময় যাত্রীদের ভিজে যেতে হচ্ছে। আর এই সুযোগটি কাজে লাগাচ্ছেন ডিঙ্গি নৌকা ব্যবসায়ীরা তারা ফেরী থেকে ঘাট পর্যন্ত নৌকায় করে পর করছেন যাত্রীদের। আর এর জন্য যাত্রীদের ভাড়া হিসেবে অতিরিক্ত ৫টাকা গুনতে হচ্ছে। অন্যদিকে পণ্যবাহী যানবাহন ও যাত্রীবাহী গাড়ি ফেরী থেকে ঘাটে ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হচ্ছে পানির মধ্য দিয়ে। বিশেষ করে ছোট যানবাহন পানি দিয়ে আসার সময় আটকে যাচ্ছে। এ রুটে যাতায়াত করা যানবাহনের চালক ও যাত্রীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন কর্তৃপক্ষের উদাসিনতায় ঘটছে এমন সমস্যা। ল্যান্ডিং স্টেশনটি উচু করে ঘাট পর্যন্ত নেয়া হলে এমন দূর্ভোগ থেকে রক্ষা পেতে পারেন যাত্রীরা। এসম্পর্কে বিআইডাব্লিউটিএ ফেরী কর্তৃপক্ষের নিকট জানতে চাইলে তারা জানান, নদী ভাঙ্গনের ফলে ইলিশা ফেরী ঘাটটির বার বার স্থান পরিবর্তন করতে হচ্ছে নতুন একটি ঘাট নির্মানের কাজ চলছে শিগগিরই এ ঘাট নির্মানের কাজ শেষ হবে। তখন আর এই সমস্যা থাকবে না।