৭ খুন : তদন্ত অগ্রগতি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে সংশ্লিষ্টরা

38335_7 muderবিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : নারায়ণগঞ্জে সাতজনকে অপহরণ করে খুনের ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটিসহ সংশ্লিষ্ট পক্ষগুলো অগ্রগতি প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। তবে প্রতিবেদনে তথ্য বিস্তারিত জানা যায়নি।

আজ বুধবার বেলা সোয়া ২টার দিকে সংশ্লিষ্টদের পক্ষে তাদের প্রতিনিধিরা অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে আইন কর্মকর্তার কাছে এসব প্রতিবেদন জমা দেন বলে সূত্র জানায়।

সূত্র জানায়, আজ জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, র‌্যাবের মহাপরিচালক, পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের পে তাঁদের প্রতিনিধিরা আদালতের নির্দেশ অনুসারে সংশ্লিষ্ট ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে তদন্তের অগ্রগতি প্রতিবেদন জমা দেন।

এ ছাড়া আদালতের নির্দেশ অনুসারে ঘটনা তদন্তে গঠিত সাত সদস্যের কমিটির পক্ষ থেকে একটি প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়েছে।

কমিটির সদস্য ও আইন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মিজানুর রহমান খান সংবাদমাধ্যমকে বলেন, প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়েছে। তদন্তের অগ্রগতি সন্তোষজনক। তদন্ত শেষ করতে সময় প্রয়োজন। তাই চার সপ্তাহ সময় চাওয়া হয়েছে।

বহুল আলোচিত এই এই হত্যাকাণ্ডের তদন্তে এই পর্যন্ত কাজের মূল্যায়ন জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই পর্যন্ত যে তদন্ত হয়েছে তাতে আমরা সন্তুষ্ট।

৫ মে বিচারপতি রেজাউল হকও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ নারায়ণগঞ্জে সাত খুনের ঘটনা নিয়ে প্রকাশিত প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে স্বতঃপ্রণোদিত রুল জারির পাশাপাশি অন্তর্র্বতীকালীন আদেশ দেন। এতে সাতজনকে অপহরণ ও হত্যার ঘটনায় প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা রাকারী বাহিনীর সদস্যদের কোনো গাফিলতি আছে কি না, এটিসহ পুরো ঘটনা তদন্তে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে সাত সদস্যের কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়। এ ঘটনায় র্যাবের সম্পৃক্ততা আছে কি না, এ বিষয়ে বিভাগীয় তদন্ত করতে র‌্যাবের মহাপরিচালককে নির্দেশ দেয়া হয়। এ ছাড়া এ ঘটনায় করা মামলা গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) পাশাপাশি সিআইডিকে (অপরাধ তদন্ত বিভাগ) তদন্তের নির্দেশ দেয়া হয়।

কাউন্সিলর নজরুল ও আইনজীবী চন্দন কুমার সরকারসহ সাতজনকে গত ২৭ এপ্রিল অপহরণ করা হয়েছিল, তিন দিন পর শীতল্যা নদীতে তাদের লাশ ভেসে ওঠে।

এরপর র‌্যাব-১১ এর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নজরুলের শ্বশুর শহীদুল ইসলাম অভিযোগ তুললে নারায়ণগঞ্জের ঘটনার তদন্তে ৫ মে দেয়া হাই কোর্টের নির্দেশে এই কমিটি গঠন করা হয়।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শাহজাহান আলী মোল্লাকে চেয়ারম্যান করে সাত সদস্যের এই কমিটি হয়।