টাঙ্গাইলের বাসাইলে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার

khunটাঙ্গাইল প্রতিনিধি :

টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার আদাজান গ্রামের আব্দুস সাত্তারের বাড়ি থেকে বুধবার সকালে কেয়া আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহত গৃহবধূ ওই গ্রামের প্রবাসী লাভলু মিয়ার স্ত্রী। গৃহবধূর মা হোসনে আরা বেগম ঘটনাটিকে হত্যা বলে দাবি করছে।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, প্রায় দেড় বছর আগে মির্জাপুর উপজেলার সল্প মহেড়া গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে কেয়া আক্তারের সাথে বাসাইল উপজেলার আদাজান গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে সৌদি প্রবাসী লাভলু মিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের ছয়মাস পরেই স্বামী লাভলু মিয়া বিদেশে চলে যায়।

মঙ্গলবার রাতে গৃহবধূ কেয়া আক্তারের লাশ ঘরের বিছানার উপর ধর্ণার সাথে ঝুলতে দেখে পুলিশে খবর দেয়।

নিহতের মা হোসনে আরা বেগম জানান, কেয়ার ননদের স্বামী রাহাত হাসান টিপু দীর্ঘদিন ধরে তাকে(কেয়া আক্তারকে) কুপ্রস্তাব দিচ্ছিল। কুপ্রস্তাবের কথা মেয়েটি তার মাকে আগেই জানিয়েছিল। কুপ্রাস্তাবে রাজি না হওয়ায় টিপুই কেয়াকে হত্যা করেছে বলে জানান তিনি।

বাসাইল থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) দেলোয়ার আহাম্মদ জানান, লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ময়না তদন্তের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।