‘চালবাজি করে মন্ত্রীর জামাতাকে বাঁচানো যাবে না’ : মান্না

23336_b4বিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের ঘটনায় মন্ত্রীর জামাতাকে কোনভাবেই বাঁচানো যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। মঙ্গলবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ ক্লাব কনভেনশন সেন্টারে আতঙ্কমুক্ত নিরাপদ নারায়ণগঞ্জের দাবিতে ‘আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী’ আয়োজিত নাগরিক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, সত্য বড়ই নিষ্ঠুর। চালবাজি করে মন্ত্রীর জামাতাকে বাঁচানো যাবে না। নারায়ণগঞ্জের মানুষ তা মেনে নেবে না।
মান্না বলেন, যে র‌্যাব বাহিনীর দায়িত্ব ছিল মানুষের জীবন রক্ষা করা, সেই র‌্যাব এখন মানুষের জীবন হরণ করছে। আওয়ামী লীগের মন্ত্রীরা নিজেদের সুযোগ-সুবিধার জন্য মুখ খুলছেন না। ভাবতে অবাক লাগে, অশিক্ষিত নূর হোসেন কিভাবে ডিসির বন্ধু হন। যদি কেউ মনে করেন, তারা ওই সন্ত্রাসীদের বাঁচাতে পারবেন, তাহলে ভুল করবেন।
হাইকোর্ট নির্দেশ দেয়ার পরও ৩ র‌্যাব সদস্যকে গ্রেপ্তার না করায় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, সবাই জানে কাদের আদেশ নির্দেশে নারায়ণগঞ্জে সেভেন মার্ডার হয়েছে এবং একের পর এক হত্যাকাণ্ড ঘটে চলেছে, পুলিশ তাদের কাউকে ধরছে না। পুলিশ ধরে আনছে নূর হোসেনের কাজের বুয়া, দেহরক্ষী আর ড্রাইভারকে। এই হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে জানতে হলে নূর হোসেনের আশ্রয় প্রশ্রয়দাতাদের ধরতে হবে। তাদের মাঝে রয়েছেন নারায়ণগঞ্জের সাবেক ডিসি, এসপি এবং তার গডফাদাররা।
খুনের ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির দুর্বলতা তুলে ধরে তিনি বলেন, সরকার একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে যে তদন্ত কমিটি গঠন করেছে এই কমিটি একজন মন্ত্রীর জামাতা আর ছেলের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে পারবে না। তাই আমরা দাবি জানাচ্ছি, একজন আপিল বিভাগের বিচারপতি অথবা নাগরিক সমাজের একজন সর্বজনগ্রহণযোগ্য ব্যক্তিকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হোক। নারায়ণগঞ্জের এই সাত খুন এবং ত্বকী হত্যাকাণ্ডের বিচার করতে হবে, অন্যথায় সরকার প্রধানকে এসব কিছুর দায়দায়িত্ব বহন করতে হবে।
বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার র‌্যাব বিলুপ্তির দাবির সমালোচনা করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া কি একবারও বলেছেন যে, তারা র‌্যাব গঠন করে ভুল করেছিলেন। র‌্যাব গঠনের পর থেকেই বিনাবিচারে ক্রসফায়ারে মানুষ হত্যা করে আসছে। র‌্যাব যত বিনা বিচারে হত্যা করেছে তার চেয়ে বেশি হত্যা করেছে পুলিশ।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর সি আর আবরার হোসেন বলেন, সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন করুন, ওই সন্ত্রাসীদের আস্তানা নারায়ণগঞ্জের মাটিতে থাকবে না। আমাদের নিরাপত্তার জন্য আমাদেরকেই ভাবতে হবে। আমাদের অধিকার আমাদেরকেই আদায় করতে হবে।
‘আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী’র সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এডভোকেট মাহবুবুর রহমান ইসমাইল বলেন, সাত হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু বিচার যতদিন না হবে, ততদিন আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী সকল স্তরের মানুষকে নিয়ে আন্দোলন করে যাবো।
আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা নুরউদ্দিনের সভাপতিত্বে বৈঠকে নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাকির হোসেন, পরিবেশবাদী আন্দোলনের নারায়ণগঞ্জ জেলা সভাপতি এডভোকেট এ বি সিদ্দিক, নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, বিএমএ নারায়ণগঞ্জ জেলা সভাপতি ডা. শাহনেওয়াজসহ বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা বক্তব্য রাখেন। বৈঠকে বক্তারা নারায়ণগঞ্জের নাগরিক সমাজের পক্ষ থেকে এই শহরের গডফাদারদের খুন, গুম, হত্যাসহ নানা অপকর্মের ফিরিস্তি তুলে ধরেন। এ ছাড়া সাত খুনের ঘটনা তদন্তের জন্য সাবেক বিচারপতির নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি গঠন করার দাবি জানান তারা।