মৌলভীবাজারে মনুবাধেঁ ভাঙ্গন, ২শ ঘরবাড়ি পানিতে

Moulvibazar kalarbazar pic 09.may.14.এমএ ওয়াদুদ,মৌলভীবাজার :
উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার আখাইলকুরা ইউপির চানপুর এলাকায় মনুবাঁধ ভেঙ্গে গিয়ে শতাধিক ঘর-বাড়ি প্লাবিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতের একঠানা ভারি বর্ষনে ও উজানের পানির প্রভাবে প্রায় অর্ধ কিলোমিটার বাঁধ ভেঙ্গে গিয়ে চানপুর,জগতপুর,মিরপুর,কান্দিগাঁও গ্রামের প্রায় ২শ ঘরবাড়ি প্লাবিত হয়। এসময় ফসল, আসবাবপত্র, গরু-ছাগল সহ কয়েক লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে স্থানীয়রা দাবি করছেন। পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) এর নির্বাহি প্রকৌশলী আজিজ মু. চৌধুরী শুক্রবার বেলা ৪টায় জানান, খবর পেয়ে পাউবোর উপ বিভাগীয় পৌকৌশলী সহ কয়েক জন সরেজমিনে রয়েছেন। তবে অর্থের অভাবে সব কাজ করা সম্ভব হচ্ছেনা। আমাদের প্রয়োজন ১৭ কোটি টাকার, পাইছি ৩ কোটি টাকা।
এদিকে জেলার শত বছরের কালারবাজারে ৪ দিনধরে কুশিয়ারা নদী ভাঙ্গনে আরো নতুন দোকান-কোটা নদী গর্ভে বিলীত হতে শুরু করেছে। সরেজেমিনে দেখা গেছে, মূল বাজারের সব দোকান-পাঠ অনেক আগেই নদী গর্ভে চলে গেছে। ধাণ্য ও চালবাজার ভেঙ্গে গিয়ে নতুন দোকানে ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। ব্যবসায়ী আতিকুর রহমান জানান, নদী ভাঙ্গন দেখতে ইতিপূর্বে রাজনগর ইউএনও মুজিবুর রহমান এসেছেন। পাউবোর লোকজন এসে মাফ-যোগ নিয়ে ভাঙ্গন রক্ষার কোন লক্ষন দেখা যাচ্ছেনা। বাজার কমিটির সভাপতি হিরা মিয়া জানান, এই বাজার শুধু ব্যবসায়ীর না এটি ৫৬ মৌজার, কাজেই সরকারি ভাবে প্রদক্ষেপ নেয়া প্রয়োজন। পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) এর নির্বাহি প্রকৌশলী আজিজ মু. চৌধুরী জানান, কালারবাজারের নদী ভাঙ্গনের নকশা পাইছি, রাজনগর ইউএনও কে চাহিদা পত্র দিয়েছি, বাজার রক্ষা করতে আড়াই কোটি টাকা লাগবে।