দিনাজপুরে ইট-ভাটার কারণে বোরো ধান বিনষ্ট প্রতিবাদে কৃষকদের সড়ক অবরোধ

dinjpurমো.নুরুন্নবী বাবু.দিনাজপুর প্রতিনিধি :
বীরগঞ্জ উপজেলায় ইট-ভাটার কারণে ১০০ একর বোরো ক্ষেতের ফসল বিনষ্ট হওয়ার প্রতিবাদে বুধবার ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকেরা ৬ ঘন্টা বীরগঞ্জ-গোলাপগঞ্জ সড়ক অবরোধ করেন। প্রশাসনের আশ্বাসের পর অবরোধ তুলে নেয়া হয়।

ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকেরা জানান, বীরগঞ্জ উপজেলার নিজপাড়া ইউনিয়নের বীরগঞ্জ-গোলাপগঞ্জ সড়কের পার্শ্বে অবস্থিত ইট-ভাটার কালো ধোয়ার কারণে পরিবেশ উত্তপ্ত হওয়ায় প্রায় ১০০ একর জমির বোরো ক্ষেতের ফসল পুড়ে গেছে। এর ফলে কৃষকদের আর্থিকভাবে বিপুল ক্ষতির শিকার হতে হচ্ছে। এ কারণে তাঁরা ক্ষতিপুরণ এবং ফসলী এলাকা হতে ইট-ভাটা সরিয়ে নেওয়ার দাবিতে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। সকাল ১১টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে রাখা হয়।

অবরোধকারী ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক মোঃ তরিকুল ইসলাম, রামপাল রায়, মোঃ মমিনুল ইসলাম, দধিনাথ রায় জানান, অপরিকল্পিত ভাবে গড়ে উঠা ইট-ভাটার কারণে আমরা বিগত বছরেও ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি। অভিযোগ করেও কোন লাভ হয়নি। তাই বাঁচার জন্য রাস্তায় নেমেছি।

সংবাদ পেয়ে বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আবু জাফর, শিক্ষা অফিসার আলাওল হাদী, উপসহকারী কৃষি অফিসার মোঃ মুক্তার হোসেন এবং বীরগঞ্জ থানার এসআই লুৎফর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের সাথে আলোচনায় বসেন।##

আলোচনা শেষে বিকেল সাড়ে ৫টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আবু জাফর ইট-ভাটা মালিক রতন কুমার সাহা রিন্টুকে ৭ দিনের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের ক্ষতিপুরণ দিতে নির্দেশ প্রদান করেন এবং যদি ব্যর্থ হয় তাহলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে কৃষকদের ক্ষতিপুরণ প্রদান করা হবে। এসময় উপসহকারী কৃষি অফিসার শামসুল আলমকে প্রধান করে ৫ সদস্যের এক তদন্ত কমিটি গঠন করে আগামী ৫ দিনের মধ্যে বীরগঞ্জের ইউএনও’র নিকট প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়। উপজেলা প্রশাসন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ায় অবরোধকারীরা অবরোধ তুলে নেন।##