পুলিশের আশ্বাসে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ প্রত্যাহার

oborodhবিডি রিপোর্ট 24 ডটকম :

আজ রাত ৮টার ভেতরেই নারায়নগঞ্জের ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-২ নজরুল ইসলামসহ অপহৃত সাতজনকে উদ্ধারের ব্যাপারে সন্তোষজনক ফলাফল পাওয়া যাবে- পুলিশের এমন আশ্বাসের ভিত্তিতে সিদ্ধিরগঞ্জে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ প্রত্যাহার করে নিয়েছে বিক্ষোভকারীরা। অপহৃত ওই সাতজনকে উদ্ধারের দাবিতে গতকালের মতো আজ মঙ্গলবারও উত্তাল হয়ে ওঠে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকা। বেলা সোয়া ১১টার দিকে নজরুল ইসলামের সমর্থকরা টায়ার জ্বালিয়ে, লাঠি-সোটা নিয়ে মহাসড়কের মৌচাক এলাকা অবরোধ করেন।অপহৃতদের সন্ধান না দিলে মহাসড়ক ছাড়বেন না বলে ঘোষণা দেন আন্দোলনকারীরা।

এ ব্যাপারে আন্দোলনকারীদের আশ্বাস দিয়ে পুলিশের নারায়নগঞ্জ সার্কেলের এএসপি বশির আহমেদ বলেন, অপহৃতদের উদ্ধারে পুলিশ সর্বোচ্চ ক্ষমতা ব্যবহার করছে। আর রাত ৮টার মধ্যে এ ব্যাপারে একটা সন্তোষজনক ফলাফল পাওয়া যাবে। তিনি আন্দোলনকারীদের অবরোধ তুলে নেওয়ার আহ্বান জানান।

পুলিশের এ কথার পর সাময়িকভাবে আন্দোলন স্থগিত করেছে বিক্ষোভকারীরা। বর্তমানে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফের যানবাহন চলাচল শুরু হয়েছে। তবে সড়কটি দীর্ঘক্ষণ বন্ধ থাকায় সৃষ্ট কয়েক কিলোমিটার যানজট কমতে বেশ কিছুটা সময় লাগবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এদিকে অপহরণের সময় নিখোঁজ জ্যেষ্ঠ আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার ও তার গাড়ির চালককে উদ্ধারের দাবিতে নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতি আদালত বর্জন করেছে। আইনজীবীরা আদালত প্রাঙ্গণে সমাবেশ ও বিক্ষোভ করেছেন। আইনজীবী ও গাড়িচালককে উদ্ধারের দাবিতে সোমবার ২৪ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেন তারা।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-২ নজরুল ইসলামসহ পাঁচজনকে গত রোববার দিনদুপুরে গাড়িসহ অপহরণ করা হয়। নারায়ণগঞ্জের আদালত প্রাঙ্গণ থেকে ঢাকায় যাওয়ার পথে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ সংযোগ সড়ক থেকে তাদের অপহরণ করা হয়। একই সড়ক থেকে প্রায় একই সময়ে নারায়ণগঞ্জের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার ও তার গাড়ির চালক গাড়িসহ নিখোঁজ হন।