বঙ্গবন্ধু সেতুর ওপর লাইনচ্যুত ট্রেনের উদ্ধার কাজ চলছে

Tangail-rellway-28.04.2014টাঙ্গাইল প্রতিনিধি :
বঙ্গবন্ধু সেতুর ওপর ঝড়ের কবলে পড়ে রোববার রাত ১১টার দিকে সেতুর সাত নম্বর পিলারের কাছে দিনাজপুরগামী দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের লাইনচ্যুত আটটি বগি উদ্ধারের কাজ চলছে। সোমবার সকালে পাবনার পাকশী ও ঢাকা থেকে রিলিফ ট্রেন ঘটনাস্থলে পৌঁছে তারা উদ্ধার তৎপরতা চালাচ্ছেন। ওই দুর্ঘটনার কারণে উত্তর ও পশ্চিম অঞ্চলের সঙ্গে সারাদেশের ট্রেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে।

এদিকে, সোমবার ভোর পৌনে ৫টার দিকে ঢাকা থেকে  রাজশাহী গামী পদ্মা এক্সেপ্রেস ট্রেনটি ভোরে বঙ্গবন্ধুসেতু পূর্ব পাড়ে ইব্রাহিমাবাদ রেলস্টেশনে যাত্রীদের নামিয়ে দেয়। এসময় বিক্ষুব্ধ যাত্রীরা বঙ্গবন্ধুসেড়–-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে। এতে রাস্তার উভয়পাশে শত শত যানবাহন আটকা পড়ে প্রায় ৩৫ কিলোমিটার জুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে হাইওয়ে পুলিশের ব্যাপক প্রচেষ্টায় যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

বঙ্গবন্ধুসেতু রক্ষণাবেক্ষণকারী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানাগেছে, ঢাকা থেকে দিনাজপুর যাওয়ার সময় রোববার রাত ১১ টার দিকে দ্রুতযান ট্রেনটি লইনচ্যুত হয়। লাইনচ্যুত বগিগুলো নদীর বিপরীতে সড়কের দিকে হেলে পড়েছে। তবে, যাত্রীরা ট্রেন থেকে নিরাপদে নেমে গেছেন।

ওই ঘটনার পরপরই রাত তিনটায় রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন। এসময় তিনি জানান, এটা প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ঘটেছে। আর এই ঘটনার জন্য চার সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এডিজিআই আমজাদ হোসেনকে প্রধান করে গঠিত তদন্ত কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

কমিটির অন্য সদস্যরা হচ্ছেন এডিজি শাহ জহির ইসলাম, পশ্চিম রেলওয়ের জিএম আব্দুল আউয়াল ও এডিজিআরএস খলিলুর রহমান।