ঝাড়খন্ডে মাওবাদীদের ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণে নিহত ৮

20600_kolkataবিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : পশ্চিমবঙ্গের বীরভূম-ঝাড়খন্ড সীমানায় মাওবাদীদের পেতে রাখা মাইন বিস্ফোরণে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের মধ্যে ৩ জন ভোটকর্মী, বাকীরা ঝাড়খন্ডের পুলিশকর্মী। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ষষ্ঠধাপের ভোট শেষ হবার পরে বীরভূম-ঝাড়খন্ড সীমানায় আসনার জঙ্গল হয়ে দুমকার দিকে যাচ্ছিল ভোট কর্মীদের একটি গাড়ি। গাড়িতে ভোটকর্মীরা ছাড়াও ছিলেন ঝাড়খন্ডের পুলিশ কর্মীরা। ওই গাড়ির পিছনেই ছিল কেন্দ্রীয় বাহিনীর নজরদারি দলের ভ্যান। সারসাকুল জঙ্গলের কাছে দ্বারকা নদীর রাজবাঁধ সেতুর নীচে পেতে রাখা ল্যান্ডমাইন বিস্ফোরণে ভোটকর্মীদের গাড়িটি উড়িয়ে দেয় মাওবাদীরা। এই সময় মাওকবাদীরা গুলি চালাতে থাকে। তারা সংখ্যায় ছিল প্রায় ৫০ জন। এরপরে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানেরা গাড়ি থেকে নেমে পাল্টা গুলি চালায়। দুপক্ষের মধ্যে প্রায় চল্লিশ মিনিট গুলির লড়াই হয়। গুলিতে ভোটকর্মী এবং জওয়ানসহ আহত হয়েছেন এগারোজন। তাঁদের প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় দুমকায়। সেখান থেকে কপ্টারে চাপিয়ে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে রাঁচিতে। ছত্তিসগড়ে গত ১২ই এপ্রিল একই কায়দায় হামলা চালিয়েছিল মাওবাদীরা। বিজাপুরের কেতুলনা গ্রামের কাছে ল্যান্ডমাইনে ভোটকর্মীদের বাস উড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল। বিস্ফোরণে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছিল। তার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই জগদলপুর জেলার দরভা এলাকায় সিআরপি জওয়ানদের গাড়ির উপর জঙ্গিরা হামলা চালানো হয়েছিল। ঘটনায় ৫ জন জওয়ান নিহত হন। মৃত্যু হয় গাড়ির চালকের। দু’টি হামলায় জখম হন ১০ জন। গত ১৭ এপ্রিল, দ্বিতীয় দফার নির্বাচনেও ঝাড়খন্ডে গিরিডি জেলায় একাধিক মাওবাদী নাশকতার ঘটনা ঘটেছিল।