গার্মেন্টে দুর্ঘটনা রোধে ব্যর্থ হলে অর্থনীতি হুমকিতে পড়বে

2_67628বিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : রানা প্লাজা দুর্ঘটনাপরবর্তী সরকার ও পোশাক খাত সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মহলের নেয়া পদক্ষেপের অগ্রগতিতে সন্তোষ প্রকাশ করেছে দুর্নীতিবিরোধী বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল (টিআইবি)। সংস্থাটি বলেছে, গত বছরের ৩১ অক্টোবরে পোশাক খাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় নেয়া ১০২টি উদ্যোগের মধ্যে ৩১ শতাংশের কাজ শেষ হয়েছে। অগ্রগতির বিভিন্ন পর্যায়ে রয়েছে ৬০ শতাংশ উদ্যোগ। তবে ৯ শতাংশ উদ্যোগে এখনও কোনো অগ্রগতি হয়নি। রানা প্লাজা ট্র্যাজেডির এক বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত টিআইবির সর্বশেষ মূল্যায়নে এসব বিষয় উঠে আসে। রাজধানীর একটি হোটেলে সোমবার ‘তৈরি পোশাক খাতে সুশাসনের চ্যালেঞ্জ : প্রতিশ্রুতি ও অগ্রগতি’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ করে টিআইবি। এ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন টিআইবির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপনির্বাহী পরিচালক ড. সুমাইয়া খায়ের, গবেষণা ও পলিসি বিভাগের পরিচালক মোহাম্মদ রফিকুল হাসান।

অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল বলেন, পোশাক শিল্পে পরিবর্তনের কাজ শুরু হয়েছে। তবে এজন্য রানা প্লাজা দুর্ঘটনার মতো ভয়াবহ ট্র্যাজেডির জন্য অপেক্ষা করা দুঃখজনক। স্পেকট্রাম, তাজরীন আর রানা প্লাজার মতো ঘটনা যাতে না ঘটে, সেজন্য কর্তৃপক্ষকে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করতে হবে। এক্ষেত্রে ব্যর্থ হলে বাংলাদেশের অর্থনীতির মূল স্তম্ভ পোশাক খাত হুমকিতে পড়বে। তিনি আরও বলেন, শ্রমিকদের স্বার্থ বিবেচনা না করে সরকার সব সময় মালিকদের স্বার্থ সংরক্ষণ করে। বিভিন্ন মহল থেকে ৮ হাজার টাকা মজুরি নির্ধারণের দাবি এলেও মালিকদের স্বার্থে তা ৫ হাজারে নির্ধারণ করা হয়। দীর্ঘমেয়াদি ও মৌলিক স্বার্থের বিষয়ে শ্রমিকরা সরকার ও মালিকপক্ষের আরও বেশি ভূমিকা প্রত্যাশা করেন। সংবাদ সম্মেলনে রানা প্লাজা দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মধ্যে অর্থ সহায়তা বিতরণে সমন্বয়ের অভাব রয়েছে বলে অভিযোগ করেছে টিআইবি। এক্ষেত্রে অস্বচ্ছতারও অভিযোগ করেন তারা। তাছাড়া দুর্ঘটনাপরবর্তীকালে সরকার ও বিভিন্ন মহলের পদক্ষেপ নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করে টিআইবি। তবে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে দুর্ঘটনায় জড়িতদের শাস্তি দাবি করা হয়েছে। টিআইবি নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান চৌধুরী বলেন, গার্মেন্ট শিল্পের বহুমুখী অনিয়ম ও দুর্নীতি থেকে উত্তরণের মাধ্যমে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় সরকার, সরকারি বিভিন্ন সংস্থা, বিজিএমইএ, কারখানার মালিক এবং ক্রেতাপক্ষ এক বছরে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি অর্জন করেছে। তবে দুর্ঘটনায় দায়ীদের শাস্তি না হলে এ অগ্রগতি ব্যাহত হবে। এছাড়া শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণে অগ্রগতি না হওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেন তিনি। পোশাক খাতের সার্বিক দায়িত্ব পালন করতে আলাদা মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠারও দাবি জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত বছরের ৩১ অক্টোবর ৬৩ ধরনের সুশাসন সূচকের মধ্যে ৫৪টি সূচক সংশ্লিষ্ট ১০২টি উদ্যোগ নেয় পোশাক খাত সংশ্লিষ্টরা। এর মধ্যে ৩১ শতাংশ উদ্যোগের শতভাগ অগ্রগতি হয়েছে। ৬০ শতাংশ উদ্যোগে কিছু অগ্রগতি হয়েছে, আর ৯ শতাংশের উদ্যোগে এখনও কোনো অগ্রগতি হয়নি। ৩০ বছরে পোশাক খাতে যে সমস্যা তৈরি হয়েছে, তার সমাধান এক-দুই বছরে করা যাবে না। কমপ্লায়েন্সের নামে কারখানা বন্ধ করা হলে শ্রমিকরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলে জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

সংবাদ সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন গবেষণা ও পলিসি বিভাগের ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার ড. শরীফ আহমদ চৌধুরী ও অ্যাসিসটেন্ট প্রোগ্রাম ম্যানেজার নাজমুল হুদা মিনা। এতে বলা হয়, পর্যাপ্ত যাচাই-বাছাই ও সংরক্ষণমূলক ব্যবস্থা ছাড়াই অনেক অর্ডার প্রত্যাহার করা হয়েছে। এতে কমপক্ষে ৫০টি কারখানা বন্ধ হয়েছে। চাকরিচ্যুত হয়েছেন প্রায় ৫০ হাজার শ্রমিক। এ প্রবণতা অব্যাহত থাকলে আগামীতে পাঁচ লাখ শ্রমিক কাজ হারাতে পারেন। এতে আরও বলা হয়, বায়ার্স ফোরাম থেকে ১৩টি কারখানা বন্ধের সুপারিশ করা হয়েছে। তাছাড়া ৫৬টি কারখানার অর্ডার বাতিল করা হয়েছে। বাতিল অর্ডারের মূল্যমান ১১০ মিলিয়ন ডলার। সরকারের অস্পষ্ট অবস্থানের কারণে শেয়ার্ড বিল্ডিংয়ের ১৫ শতাংশ কারখানা বন্ধ হওয়ার ঝুঁকির মুখে পড়েছে। বাংলাদেশের পোশাক খাতের উন্নয়নে ও নিরাপদ কর্মপরিবেশ তৈরিতে ক্রেতাদের প্রতিশ্রুতি নিয়েও প্রশ্ন তোলে টিআইবি। এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্ত শ্রমিকদের ক্ষতিপূরণ দিতে মাত্র একটি ব্র্যান্ড রাজি হয়েছে। অথচ ভবনের পাঁচটি কারখানায় ২৮টি ব্র্যান্ডের জন্য কাজ করা হতো। প্রতিটি পোশাকের দাম মাত্র ৩ সেন্ট বাড়লেই নিরাপদ কর্মপরিবেশ গড়ে তোলা সম্ভব বলে জানানো হয়। তাছাড়া ক্রেতাদের পরিদর্শন কার্যক্রমেও ধীরগতি রয়েছে। বায়ারদের সংগঠন অ্যাকর্ড ১ হাজার ৬২৬টি কারখানার মধ্যে মাত্র ৮০টি ও অ্যালায়েন্সের ৬২৬টি কারখানার মধ্যে ২৪৭টি কারখানার জরিপ কার্যক্রম সম্পন্ন করেছে।