পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় অগ্নিকান্ডে ২৭ টি পরিবার ঘরছাড়া

indexডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ২৭ পরিবার ঘরছাড়া হয়ে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জীবন যাপন করছে।

ফায়ার সার্ভিস স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার সময় পঞ্চগড় জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলার ভজনপুর ইউনিয়নের গিতালগছ গ্রামের রমিজুলের বাড়ির রান্না ঘর থেকে এই অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। আগুণ লাগার পর মানুষ দিকবিদিক ছুটোছুটি করে পালাতে থাকে। আগুণ নিয়ন্ত্রণে আনার চেয়ে তারা নিজেদের প্রাণ বাঁচাতে পালাতে থাকে। খবর পেয়ে তেঁতুলিয়া ফায়ার সার্ভিস  ও পঞ্চগড় ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ৩ টি ইউনিট ঘটনাস্থলে এসে প্রায় আড়াই ঘন্টা চেষ্ঠার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে গ্রামের ২৭ টি পরিবারের প্রায় ৫২ টি ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। নগদ টাকা, গৃহপালিত গরু-ছাগল, ধান, চাউলসহ ঘরে গচ্ছিত সব কিছু পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। অগ্নিকান্ডের শিকার হকিকুল (৪০), শমসের (৪০), এরফান (৪৫) ও মমতাজ (৫৫) সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দরা জানান, অগ্নিকান্ডে  ক্ষতি হয়েছে প্রায় ১ কোটি টাকার সম্পদ। তবে কোন মানুষের হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। আগুনের সূত্রপাত কোথা থেকে হলো এ নিয়ে সংশয়ের দেখা দিয়েছে। পঞ্চগড় ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের স্টেশন মাস্টার আব্দুল মালেক জানান, আগুণের সূত্রপাত বাড়ির রান্নাঘরের চুলা থেকে হয়েছে। ঘটনার পরপরই তেঁতুলিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিম শাহিন ও স্থানীয় নেতৃবৃন্দ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের তাৎক্ষণিক খাওয়া দাওয়ার ব্যবস্থা করেন।

শনিবার সকালে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ সালাহ উদ্দিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রতি পরিবারকে ৩০ কেজি চাল, ২ হাজার টাকা ও ২ টি করে কম্বল বিতরণ করেন। তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের ক্ষতির পরিমাণ নিশ্চিত করে তাদের ত্রান ও পুনর্বাসন মন্ত্রণালয়ের অধিনে তাদের পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে।