পাটগ্রামে এক বাংলাদেশি কিশোরীকে লাঞ্চিত করেছে বিএসএফ

indexএস,এম সহিদুল ইসলাম লালমনিরহাট প্রতিনিধি ঃ
লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার ধবলগুড়ি সীমান্তে গতকাল শনিবার দুপুরে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে বসত-বাড়ি ভাংচুরসহ এক তরুণীকে লাঞ্চিত করেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ।

জানা গেছে, ওই সীমান্তের ৮৮৬ নং আন্তজার্তিক সীমান্ত পিলারের কাছে বাংলাদেশী ভূ-খন্ডে গরুর ঘাস কাটতে যায় স্থানীয় রাসেল নামে এক যুবক। এসময় তাকে লক্ষ্য করে ধাওয়া করেন ৩৫-ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী বিএসএফ’র কুচবিহার-ফালাকাটা’র ললোংগাবাড়ী ক্যাম্পের টহল দল। ওই যুবক ধাওয়া খেয়ে পালিয়ে গেলেও বিএসএফ’র টহল দল সীমান্তের পাশেই সিরাজুলের বাড়ি ঘিরে ফেলে। বিএসএফের দাবি, ওই বাড়িতে রাসেল লুকিয়ে আছে। এক পয়ার্য়ে বিএসএফ সদস্যরা সিরাজুলের বসত-বাড়ীতে ভাংচুর চালায়। এ সময় সিরাজুলের মেয়ে ধবলগুড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী বাধা দিলে তাকে বিএসএফ’র ওই টহল দল লাঞ্চিত করেন। পরে স্থানীয় লোকজন দলবদ্ধ হয়ে ধাওয়া করলে বিএসএফ’র সদস্যরা পালিয়ে যায়। জোংড়া ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এলাকার পরিবেশ শান্ত করতে বিজিবি টহল দিচ্ছে।

৭ বিজিবির রংপুর ব্যাটালিয়নের উপ-অধিনায়ক মেজর রুহল আমীন জানান, পুরো বিষয়টি নিয়ে আমরা বিএসএফকে পতাকা বৈঠকে বসতে আহবান জানিয়েছে। বৈঠকে আমরা কড়া প্রতিবাদ জানবো।