images

তারেকের সংবাদ প্রকাশ গণমাধ্যমের অপরাধ

ঢাকা: বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সংবাদ প্রকাশ করায় গণমাধ্যমকে দুষলেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

তিনি বলেছেন, ‘একজন ফেরারি আসামি হওয়া সত্ত্বেও তার কথা ফলাও করে দেশের সব গণমাধ্যম প্রকাশ করছে। তাই তারেক রহমান মিথ্যাচার করে যে ধরনের অপরাধ করেছে, দেশের গণমাধ্যম সে মিথ্যাচার প্রকাশ করে সমান অপরাধ করেছে।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর পাবলিক লাইব্রেরির সেমিনার হলে এশিয়ান জার্নালিস্ট হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড কালচারাল ফাউন্ডেশন (এজাহিকাফ) আয়োজিত ‘বঙ্গবন্ধু ও স্বাধীনতার আলোকে আমাদের সংস্কৃতি চর্চা’ শীর্ষক আলোচনা ও সম্প্রতি দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি নিয়ে অপপ্রচারের প্রতিবাদ সভায় তিনি এ কথা বলেন।

মুক্তিযুদ্ধ ও মুজিবনগর সরকারকে প্রশ্নবিদ্ধ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে খাটো করার জন্য বারবার তারেক রহমান পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআইয়ের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী অপপ্রচার চালাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন কামরুল।

তিনি বলেন, ‘বারবার তারেক রহমানের অপপ্রচারকে পাগলের প্রলাব বলে উড়িয়ে দেয়ার সুযোগ নেই। তার এ মিথ্যাচার বন্ধ করতে না পারলে এটা এক সময় সত্যিতে পরিণত হবে। এ জন্য আমি ভীত।’

খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘তারেক রহমানের এ মিথ্যাচার কেন বন্ধ করা যাচ্ছে না। সরকারের একজন মন্ত্রী হিসেবে আমিও স্বীকার করছি আসলে কেন আমরা এটা বন্ধ করতে পারছি না। এখন এর নেপথ্যে মূলত কারা রয়েছে তাদের খুঁজে বের করে এই অপপ্রচার বন্ধ করতে হবে।’

সংগঠনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মুহাম্মদ আব্দুল খালেকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের উপ কমিটির সহ-সম্পাদক এম এ করিম, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা প্রমুখ।