খালেদাকে নাসিম তারেককে থামান

ঢাকা: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, “আপনার ছেলেকে থামান। উনি লন্ডনে বসে কয়দিন পরপর একেকটা কথা বলে মানুষকে বিভ্রান্ত করছেন।”

বৃহস্পতিবার বিকেলে সংসদের বৈঠকে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে যারা কটূক্তি করে, তাদের বিচারের জন্য আইন প্রণয়নের দাবি জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সিনিয়র সংসদ সদস্য মোহাম্মদ নাসিম।

বিকেলে সংসদের বৈঠকে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনায় তিনি সংবিধান অনুযায়ী এমন একটি আইন
প্রণয়নের জন্য আইনমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান, যে আইনের ক্ষমতাবলে বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে কটূক্তি করলে বা জাতীয় পতাকার অবমাননা করলে কঠোর শাস্তি দেয়া
যায়।

নাসিম বলেন, “পৃথিবীর কোনো দেশের জাতির জনককে অশ্লীল ভাষায় গালাগাল করা হয় না। ভারতে মহাত্মা গান্ধীর বিরুদ্ধে কটূক্তি করলে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে ব্যবস্থা নেয়া হয়। চীনে মাও সেতুং সম্পর্কে কোনো
অশ্লীল কথা বলা হয় না।”

তিনি বলেন, “মন্ত্রী হিসেবে আমার সমালোচনা হতে পারে, এমনকি প্রধানমন্ত্রীরও সমালোচনা হতে পারে। কিন্তু জাতির পিতাকে নিয়ে, সংবিধান নিয়ে সমালোচনা মানা যায় না। এর বিরুদ্ধে এখনই কঠোর হতে হবে। মানুষ শক্তের ভক্ত, নরমের জম।”

২০১৯ সালের আগে দেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কোনো সম্ভাবনা নেই বলে নাসিম দাবি করেন। তিনি বলেন, “শেখ হাসিনা নিজে যদি মনে করেন, মধ্যবর্তী নির্বাচন দিতে পারেন। কিন্তু আমরা মনে করি না যে মধ্যবর্তী নির্বাচন
দেয়ার কোনো যৌক্তিকতা আছে।”

বর্তমান সংসদে বিএনপি থাকলে আওয়ামী লীগ খুশি হত বলেও মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের এই সিনিয়র নেতা। তিনি বলেন, “৫ জানুয়ারির নির্বাচনের বিকল্প ছিল
না। কিন্তু আমরা এরকম নির্বাচন চাননি।”

নাসিম বলেন, “চন্দ্র-সূর্যের মতো সত্য বঙ্গবন্ধুকে বিতির্কত করার জন্য ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি। কারণ এখন যারা বিএনপি করে, অধিকাংশই প্রাক্তন মুসলিম লীগের বংশধর।”

তিনি বলেন, “অনেকেই বিএনপির সঙ্গে সমঝোতার কথা বলেন। কিন্তু যারা ১৫ আগস্ট জন্মদিন পালন করে, তাদের সাথে সমঝোতা হতে পারে না। যারা বারবার বঙ্গবন্ধুকে বিতর্কিত করতে চায়, যারা শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চায়, তাদের সাথে সমঝোতা হতে পারে না।”25159_nasim