নাটোরে থ্রি হুইলার অটোরিক্সার টোল আদায়ে দশ দিনের নিষেধাজ্ঞা

natore-110শেখ তোফাজ্জ্বল হোসাইন, নাটোর প্রতিনিধি :
নাটোরে জেলা প্রশাসক সহ সাত পৌর মেয়রকে বিবাদী করে থ্রি হুইলার অটোরিক্সা মালিক সমিতির পক্ষ থেকে মামলা করায় আদালত টোল আদায় থেকে বিরত থাকার জন্য দশ দিনের নিষেধাজ্ঞা জারী করেছে। নাটোর জেলা অটোরিক্সা সিএনজি থ্রি হুইলার মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ হোসেন সরদার এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মোঃ রইস উদ্দিন সহ সমিতির আট কর্মকর্তা বাদী হয়ে নাটোর সদর আদালতে ৮ এপ্রিল মামলাটি করলে সহকারী জজ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এই আর্দেশ দেন। মামলায় নাটোরের জেলা প্রশাসক, বড়াইগ্রাম পৌরসভার মেয়র মোঃ ইসাহাক আলী, বনপাড়া পৌরসভার মেয়র মোঃ জাকির হোসেন, সিংড়া পৌরসভার মেয়র শামিম আল রাজি, নলডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র আব্বাস আলী নান্নু, গোপালপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম বিমল, বাগাতিপাড়া পৌরসভার মেয়র মোঃ মোশাররফ হোসেন এবং গুরুদাসপুর পৌরসভার মেয়র মোঃ শাহ্ নেওয়াজ মোলাকে বিবাদী করা হয়েছে। মামলার আর্জিতে বলা হয়, অটোরিক্সা মালিকগণ বিদেশ থেকে আমদানী করা বিভিন্ন কোম্পানীর যেসব থ্রি হুইলার দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে রাস্তায় যাত্রী পরিবহন করছেন তা সরকারের বিআরটিএ এর যথাযথ অনুমোদন রয়েছে। এছাড়াও এসব অটোরিক্সা এবং থ্রি হুইলার কোন পৌরসভার রাস্তা ব্যবহার না করে শুধুমাত্র হাইওয়ে দিয়ে চলাচল করে। রাস্তায় যাত্রী পরিবহনের নামে রাজস্ব আদায়ের কোন সরকারী নীতিমালা না থাকার পরেও নাটোরের নাটোর সদরের পৌরসভা সহ আটটি পৌরসভা অবৈধভাবে তাদের ইচ্ছামতো গাড়ি প্রতি ১৫ থেকে ২০ টাকা হারে টোল আদায় শুরু করে। এর বিরুদ্ধে গত ১৪ মার্চ থ্রি হুইলার অটোরিক্সা মালিক সমিতির পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক বারাবর স্মারকলীপি দেয়া হলে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মোঃ সাখাওয়াত হোসেন আট পৌর মেয়রকে টোল বন্ধের জন্য চিঠি দেন। চিঠি পেয়ে নাটোর সদর পৌরসভার মেয়র টোল আদায় কার্যক্রম বন্ধ করলেও অন্য সাত মেয়র তা বহাল রাখে। এমনকি টোলের টাকা আদায়ে তারা অনেক সময় লাঠি সহ বল প্রয়োগ করেন। এই টোল বন্ধের দাবীতেই ৮ এপ্রিল নাটোর সদর সহকারী জজ আদালতে এই মামলাটি দায়ের করা হলে বিচারক মোঃ জাহাঙ্গীর আলম দশ দিনের নিষেধাজ্ঞার আর্দেশ দেন। এব্যাপারে মামলার এক নম্বর বাদী বড়াইগ্রাম পৌরসভার মেয়র মোঃ এসাহাক আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এখনও আদালতের কোন সমন বা কাগজপত্র তিনি পাননি, পাওয়া গেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে। মামলার বাদী নাটোপরের জেলা প্রশাসক মোঃ জাফর উলাহ বলেন, এব্যাপারে জেলা আইনশৃংখলা কমিটির মিটিংয়ে আলোচনা হলে নাটোর পৌরসভাকে টোল আদায় বন্ধ করতে বলা হলে তা তারা বন্ধ করে দিয়েছে। অন্য কোন পৌরসভা টোল আদায় করে কিনা তা তার জানা নেই। এছাড়া আদালতের কোন চিঠিও পাননি।