কুড়িগ্রামে দালাল চক্র কর্তৃক ডিবি পুলিশকে হেনেস্থা

korigramসৌরভ কুমার ঘোষ,কুড়িগ্রাম প্রতিনিধিঃ

কুড়িগ্রামে শক্তিশালী দালাল চক্র ব্যবসায়ীদের ঢাল বানিয়ে ডিবি পুলিশের একটি দলকে হেনেস্থা করার মতো গুরুত্বর অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল রোববার ব্যবসায়ী নেতারা পুলিশ সুপার সঞ্চয় কুমার কুন্ডুর সাথে সাক্ষাত করে নিজেদের অবস্থান পরিস্কার করেন। পুলিশ সুপার-এর সাথে সাক্ষাত শেষে ব্যবসায়ী নেতারা সাংকাদিকদের জানান- ডিবি পুলিশের সাথে আমাদের যে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি হয়েছিল তার সুষ্ঠ সমাধান হয়েছে।

তথ্যানুসন্ধানে জানা গেছে, একটি দালাল চক্র ডিবি পুলিশের কাছে ফাঁয়দা নিতে না পেরে তারা মোবাইল ফোনে ডিবি পুলিশকে মিথ্যা তথ্য প্রদান করে জানায়- কলেজ মোড়স্থ ষ্টেশন ক্লাব মার্কেটে অবস্থিত তহুরা ডেকোরেটর এন্ড ফটোষ্ট্যাষ্ট এর দোকানে বিপুল সংখ্যক ফেনসিডিল রাখা হয়েছে। এখবর পেয়ে গত ৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় কুড়িগ্রাম ডিবি অফিসের এএসআই আনোয়ার এর নেতৃত্বে একটি দল ওই দোকানে অভিযান চালাতে আসে। সে সময় পূর্ব থেকে ওঁৎপেতে থাকা দালাল চক্রের লোকজন ব্যবসায়ী সেঁজে ডিবি পুলিশের দলটিকে ঘিরে ফেলে। এসময় ব্যবসায়ীরা না বুঝেই উত্তেজিত হয়ে পড়ে। পরে খবর পেয়ে কুড়িগ্রাম সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) রুহানীর নেতৃত্বে একদল পোষাকধারী পুলিশ ঘটনাস্থলে  উপস্থিত হলে পরিস্থিতি শান্ত হয়ে আসে।

খোঁজ নিয়ে আরো জানা গেছে- অতি সম্প্রতি একটি মাদক মামলার আসামীকে ছেড়ে নেয়ার জন্য দালাল চক্রটি চেষ্টা করে ব্যর্থ হবার পর তারাই ফেনসিডিলের নাটক সাজায়।

এ ব্যপারে ষড়যন্ত্রের শিকার ডিবি পুলিশের এএসআই আনোয়ার জানান-  দালাল চক্রটি বিভিন্ন  সময় আমার কাছে অন্যায় প্রস্তাব নিয়ে এসেছিল। কিন্তু আমি তাদের প্রস্তাবে সম্মতি না হওয়ায় তারা আমাকে ভুল ইনফরমেশন দিয়ে এখানে ডেকে এনে ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে আমাকে হেনেস্থা করার চেষ্টা করে।

একই প্রসঙ্গে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হওয়া অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) রুহানী বলেন, ঘটনাটি সন্দেহ জনক। পূর্নাঙ্গ তদন্ত ছাড়া এ ব্যপারে চুড়ান্ত মন্তব্য করা যাচ্ছে না।

এ ব্যপারে আদর্শ পৌরবাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আমিরুল ইসলাম জানান- আমরা ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ এসপি স্যারের কাছে গিয়ে প্রকৃত ঘটনা তুলে ধরেছি। উনি (পুলিশ সুপার) আমাদেরকে আশ্বাস্ত করে বলেছেন তিনি যথাপোযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

কলেজ মোড়’র ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি রিয়াজুল ইসলাম বলেন- যে দালাল চক্র ব্যবসায়ীদের ঢাল বানিয়ে ফায়দা লোটার চেষ্টা করেছিল তাদের উপযুক্ত বিচার হওয়া উচিত।

উদ্ভুর্ত পরিস্থিতি সম্পর্কে কুড়িগ্রাম উন্নয়ন ফোরামের আহ্বায়ক আতাউর রহমান বিপ্লব জানান- ডিবি পুলিশের দলকে হেনেস্থাকারী দালাল চক্রের মুল শেকড় উপড়ে ফেলতে পুলিশ প্রশাসনকে আরো বেশী তৎপর হতে হবে।