দেশে স্বাধীনতা নিয়ে ব্যবসা করা হচ্ছে : গোলাম মোস্তফা ভুইয়া

Pic 29-03-14বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেছেন, দেশে এখন স্বাধীনতা নিয়ে ব্যবসা চলছে। ২৬ মার্চে লাখো কন্ঠে জাতীয় সংগীতকে কেন্দ্র করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাওয়ালারা যে ব্যবস্থা করেছে সমগ্র জাতিকে লজ্জিত করেছে। মানুষের উপর অত্যাচার, নির্যাতন, বিচারবর্হিভূত হত্যা আর লাখো কন্ঠে জাতীয় সংগীত গাইলেই গণতন্ত্র রক্ষা করা যায় না। গণতন্ত্র রক্ষায় মওলানা ভাসানী ও মশিউর রহমান যাদু মিয়া পদর্শিত পথে সংগ্রাম চালাতে হবে।

তিনি আজ শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনস্থ যাদু মিয়া মিলনায়তনে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ কক্সবাজার জেলা নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখছিলেন। ন্যাপ কক্সবাজার জেলা সভাপতি এস.এম. ছৈয়দউল্লাহ আজাদের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশ গ্রহন করেন ন্যাপ যুগ্ম মহাসচিব স্বপন কুমার সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ কামাল ভুইয়া, বাংলাদেশ জাতীয় ছাত্রদল সভাপতি এম.এন. শাওন সাদেকী, ন্যাপ জেলা সাধারন সম্পাদক মাস্টার জামাল হোছাইন চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব আমানউল্লাহ, সহ-সম্পাদক ডাঃ মফিজুর রহমান, ঢাকা মহানগর দপ্তর সম্পাদক মেহেদী হাসান সোহেল প্রমুখ।

এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, আজ যখন বাংলাদেশ ধীরে ধীরে সার্বভৌমত্ব হারাতে বসেছে তখন স্বাধীনতার ইতিহাস নিয়ে নতুন নতুন বিতর্ক শুরু হয়েছে। এই বিতর্ক কারো জন্যই মঙ্গলজনক নয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতা একক কোন ব্যাক্তি বা একদলের অবদান নয়। দীর্ঘ পক্রিয়ার মধ্য নিয়ে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় যার যতটুকু অবদান তাকে তাঁর স্বীকৃতি দিতে হবে। স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা মজলুম জননেতা মওলানা ভাসানী, স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সশস্র মুক্তিযুদ্ধের ঘোষক জিয়াউর রহমান আমাদের জাতীয় ঐক্যের প্রতীক। জাতীয় স্বার্থেই ঐক্যের এই প্রতিকদের বিতর্কের উর্দ্বে রাখতে হবে।

স্বপন কুমার সাহা বলেন, আজ সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়তে অতিত থেকে শিক্ষা গ্রহন করতে হবে। বাংলার স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব আজ হুমকির মুখে। নির্বাচন আর ভোট হলেই গণতন্ত্র হয় না। ভোটারবিহীন নির্বাচন দিয়ে গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয় না।

সভাপতির বক্তব্যে এস.এম. ছৈয়দউল্লাহ আজাদ বলেন, শুধু নির্বাচিত হলেই একটি সরকার গণতান্ত্রিক হয় না। নির্বাচিত সরকার যখন জনগনের বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহন করে তখন তারাও স্বৈরাচারে পরিনত হয়। চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলনে জননেতা জেবেল রহমান গাণির নেতৃত্বে ন্যাপকে শক্তিশালী দলে পরিনত করতে হবে।