খাগড়াছড়িতে ব্রাশফায়ারে ইউপিডিএফ সদস্য আহত, নিখোঁজ ১

Khagracoryখাগড়াছড়ি প্রতিনিধি :
রাঙামাটি সদরের বন্দুকভাঙা ইউনিয়নের চেয়ারম্যানটিলা নামক স্থানে সন্ত্রাসীদের ব্রাশফায়ারে ইউপিডিএফ সদস্য পিকাশ চাকমা ওরফে নিকাশ(২৫) গুরুতর আহত হয়েছেন। এছাড়া সুসময় চাকমা ওরফে কাপন (৩৫) নামে অপর এক সদস্য নিখোঁজ রয়েছে। ২৬ মার্চ বুধবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ইউনাইটেড পিপল্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট(ইউপিডিএফ)-এর প্রেস সেকশনের প্রধান নিরন চাকমা স্বক্ষরিত রাঙামাটি জেলা ইউনিটে সংগঠক সচল চাকমা জেএসএস(সন্তু-উষাতন) গ্রুপকে দায়ী করে এক বিৃবতিতে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবি করেছেন।

বিবৃতিতে তিনি ঘটনার বর্ণনা দিয়ে বলেন, বুধবার সকালে ইউপিডিএফ’র দুই সদস্য পিকাশ চাকমা ও সুসময় চাকমা ইঞ্চিনচালিত বোট যোগে সাংগঠনিক কাজে যাচ্ছিলেন। যাবার পথে চেয়ারম্যান টিলা নামক স্থানে পৌঁছলে সেখানে আগে থেকে ওঁৎ পেতে থাকা সন্তু-উষাতন গ্রুপের সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা তাদের বোট লক্ষ্য করে অতর্কিতে উপর্যুপুরি ব্রাশফায়ার করে। এতে জীবন বাঁচানোর তাগিদে পিকাশ ও সুসময় কাপ্তাই লেকের পানিতে ঝাঁপ দেন। পরে স্থানীয় এলাকাবাসী পিকাশ চাকমাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করলেও সুসময় চাকমা এখনো নিখোঁজ রয়েছেন। পিকাশ চাকমার পিঠে ও দুই হাতে গুলিবিদ্ধ হয়েছে। আহত অবস্থায় তাকে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রামে পাঠানো হয়েছে। নিখোঁজ সুসময় চাকমাকে এখনো খুঁজে পাওয়া যায়নি।

বিবৃতিতে তিনি এ ঘটনাকে কাপুরুষোচিত ও ন্যাক্কারজনক উল্লেখ করে বলেন, সন্তু-উষাতন তালুকদারের নির্দেশে তাদের লেলিয়ে দেয়া সন্ত্রাসীরা একের পর এক ইউপিডিএফের কর্মীদের উপর সশস্ত্র হামলা চালাচ্ছে অভিযোগ করেন।  উষাতন তালুকদার এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে তাদের পালিত সন্ত্রাসীরা রাঙামাটির বিভিন্ন জায়গায় সশস্ত্র অবস্থান নিয়ে এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছে। প্রকাশ্যে তারা সশস্ত্র কর্মকান্ড চালালেও প্রশাসন তাদের বিরুদ্ধে কোন পদক্ষেপ না নিয়ে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সহযোগিতা প্রদান করে যাওয়ার ফলে তারা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বলে বিবৃতিতে অভিযোগ করা হয়।