স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় সংগীতে রেকর্ড গড়ল বাংলাদেশ

16531_lakhoবিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : লাখো কণ্ঠে জাতীয় সংগীত গেয়ে ইতিহাস গড়লো বাংলাদেশ। আড়াই লাখেরও বেশি কণ্ঠে গাওয়া জাতীয় সংগীতের রেকর্ড এখন বাংলাদেশের। স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের ৪৩তম বার্ষিকীতে জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে রচিত হলো নয়া এ ইতিহাস। ঐতিহাসিক এ ক্ষণে জাতীয় সংগীতে কণ্ঠ মিলিয়েছেন কোটি মানুষ। সকাল সোয়া ১১টার দিকে শুরু হওয়া জাতীয় সংগীতে প্যারেড গ্রাউন্ডে অংশ নেন দুই লাখ ৬৮১জন। এতে অংশ নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতীয় সংগীত শুরুর আগে তিনি সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে দেশবাসীকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানান। একই সঙ্গে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন জাতীয় সংগীতে কণ্ঠ মেলাতে আসা লোকজনের প্রতি।
২০১৩ সালের ৬ই মে সমবেত কণ্ঠে জাতীয় সংগীত গেয়ে গিনেজ বুকে রেকর্ড  করে সাহারা ইন্ডিয়া পরিবার (ভারত)। ওই আয়োজনে ১ লাখ ২১ হাজার ৬৫৩ জন অংশ নিয়েছিলেন। আজকের আয়োজনে গিনেস বুক রেকর্ড কমিটির পর্যবেক্ষকরা অংশ নেন। তাদের পর্যবেক্ষনের ভিত্তিতে রেকর্ডে নাম উঠবে বাংলাদেশের।
স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় ঐক্য ও স্বাধীনতার চেতনা শাণিত করার লক্ষ্য নিয়ে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানের সাবির্ক ব্যবস্থাপনায় ছিল সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ।
সকাল সাড়ে ৬টায় প্যারেড মাঠের ফটক খুলে দেয়ার আগেই নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে পায়ে হেঁটে এসে বাইরে জড়ো হন লাখো মানুষ।  বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন, পোশাক ও পরিবহনসহ বিভিন্ন খাতের কর্মীসহ সব শ্রেণিপেশার মানুষ প্যারেড মাঠে হাজির হন। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়তে থাকে জনস্রোত। সকাল ১০টার মধ্যে প্যারেড গ্রাউন্ডে অংশগ্রহণকারীর সংখ্যা দুই লাখ ছাড়িয়ে যায়। ক্রমে এ সংখ্যা বাড়তে থাকে।