দুর্নীতির অভিযোগে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের পরিদর্শক রবীন্দ্রকে কারণ দর্শানো নোটিশ

dinajpur-13নুরুন্নবী বাবু দিনাজপুর প্রতিনিধি :
সরকারের আর্থিক ক্ষতি সাধন করে দুর্নীতি করার অভিযোগে দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক রবীন্দ্র নারায়ন ভট্টাচার্যকে ২৪ ঘন্টার কারণ দর্শানো নোটিশ দেয়া হয়েছে।

দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, সরকারের আর্থিক ক্ষতিসাধন করে দুর্নীতির আশ্রয় নেয়ায় শিক্ষা বোর্ডের বিদ্যালয় পরিদর্শক রবীন্দ্র নারায়ন ভট্টাচার্যকে রোববার বিকেলে কারণ দর্শানো নোটিশ দেয়া হয়েছে। ২৪ ঘন্টার মধ্যে জবাব দেয়ার জন্য সময় বেধে দেয়া হয়। বোর্ডের সচিব আব্দুল মজিদ স্বাক্ষরিত ২৯/১৩৬০(৬) স্মারকে অভিযোগ করা হয় স্কুল পরিদর্শক রবীন্দ্রনাথ রংপুর জেলার গোপীনাথপুর হায়দারীয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক পদে ২ জনের নিয়োগের ব্যাপারে কোন ধরনের যাচাই-বাছাই ছাড়া অনুমোদন দেন। অথচ শিক্ষা মন্ত্রণালয় কর্তৃক উক্ত বিদ্যালয়ে শাখা খোলার কোন অনুমোদন ছিল না। অনুমোদনহীন ২ জন শাখা শিক্ষক নিয়োগের ভূয়া পত্র দিয়ে রবীন্দ্রনাথ ব্যক্তিগত ভাবে আর্থিক লাভবান হয়েছেন ও শিক্ষা বোর্ডের ভাবমুর্তি বিনষ্ট করে একজন কর্মকর্তা হিসেবে বিশ্বাস ভঙ্গ করেছেন।

কারণ দর্শানো নোটিশে অভিযোগ করা হয় ফাইল নোটে বোর্ডের চেয়ারম্যান ও সচিবের কোন অনুমোদন ছাড়াই রংপুর শিক্ষা অফিসারের অবহিত পত্র গোপন করে রবীন্দ্রনাথ ২ জন শিক্ষককে অবৈধভাবে নিয়োগ ও এমপিও ভুক্তির সুযোগ দিয়ে সরকারের প্রচুর আর্থিক ক্ষতি সাধন করেছেন।
জানা যায়, এর আগে ২০০৯ সালে দুর্নীতির কারণে শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তৎকালীন শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর মোঃ সানাউলাহ রবীন্দ্রনাথকে শোকজ করেছিলেন। কিন্তু চেয়ারম্যান কিছুদিন পর বদলি হওয়ায় রবীন্দ্রনাথ অসৎভাবে বিষয়টি ধামাচাপা দেন। অভিযোগে প্রকাশ, শুক্র ও শনিবার বিদ্যালয় পরিদর্শক রবীন্দ্রনাথ কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, নীলফামারী ও গাইবান্ধা জেলায় গিয়ে বিদ্যালয় পরিদর্শনের নাম করে তার নিযুক্ত এজেন্টদের মাধ্যমে উৎকোচ গ্রহন করেন।##