দিনাজপুরের ফুলবাড়ী ও বোচাগঞ্জে জমে উঠেছে প্রচারনা

Bochaganj Upazila chearman 4 candidet pic copyমো. নুরুন্নবী বাবু দিনাজপুর প্রতিনিধি :
৪র্থ দফা উপজেলা নির্বাচনে দিনাজপুরের ফুলবাড়ী ও বোচাগঞ্জ উপজেলায় নির্বাচনকে ঘিরে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি ও জামায়াতের নেতাকর্মীরা দিন-রাত নির্বাচনী প্রচারাভিযানে মুখরিত করে রেখেছেন হাট-বাজার, পাড়া-মহল্লা, জনপদ আর চায়ের দোকান। নিজেদের প্রার্থীদের পক্ষে ভোটারদের সমর্থন আদায়ে চলছে নানা মুখী তৎপরতা।

আগামী ২৩ মার্চ রোববার ৪র্থ দফায় দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী ও বোচাগঞ্জ উপজেলার নির্বাচন। ফুলবাড়ী উপজেলা প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাডঃ মোস্তাফিজুর রহমান এমপি’র নিজস্ব উপজেলা। তাই আওয়ামী লীগ এখানে মর্যাদার লড়াইয়ে জয়ী হওয়ার জন্য মরিয়া হয়ে মাঠে নেমেছে। গত উপজেলা নির্বাচনে বামমোর্চার প্রার্থী আমিনুল ইসলাম বাবলুর বিজয় আওয়ামী লীগকে নিরাশ করেছিল। এবার নিজেদের ঘরে নির্বাচনী ফসল তোলার জন্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে ব্যাপক তৎপরতা চালাচ্ছেন। বিএনপি’র তাদের অবস্থান ধরে রেখে জয়যুক্ত হতে জোর নির্বাচন প্রচারনা ও তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগ বিরোধী আন্দোলনে জামায়াতকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপি নিজের সাংগঠনিক ভিতকে মজবুত করে নিজের ঘর সাজিয়েছে। নির্বাচনে ১৯ দলীয় জোটের ঐক্য হওয়ায় আওয়ামী লীগকে মোকাবেলা করতে হবে শক্ত প্রতিপক্ষ।

চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান এমপি’র ছোট ভাই ফুলবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান বাবুল (দোয়াত কলম)। বিএনপি’র প্রার্থী উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি অধ্যক্ষ খুরশিদ আলম মতি (আনারস) আর জাতীয় পার্টির প্রার্থী জেলা জাপা’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ মোঃ নুরুল ইসলাম (মোটরসাইকেল)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন যুবলীগের উপজেলা সাধারণ সম্পাদক গোলাম মওলা রঞ্জু (তালা), উপজেলা জামায়াতের সেক্রেটারী মঞ্জুরুল কাদের বাবুল (উড়ো জাহাজ) এবং স্বতন্ত্র মোঃ জাকারিয়া (টিউবওয়েল)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদের ৩ জন প্রার্থী হচ্ছেন আওয়ামী লীগের নিরু সামসুন নাহার (কলস), বিএনপি’র মিনারা বেগম (হাঁস) ও বিএনপি’র বিদ্রোহী হাসিনা বেগম (ফুটবল)। ফুলবাড়ী উপজেলায় মোট ভোটার ১লাখ ১৯ হাজার ৭৩৮ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৬০ হাজার ১৯৭ ও মহিলা ৫৯ হাজার ৫৪১ জন।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি’র নিজ উপজেলা বোচাগঞ্জে আওয়ামী লীগকে লড়তে হচ্ছে বিদ্রোহী প্রার্থী সঙ্গে নিয়ে। দলের একক প্রার্থী না থাকায় আওয়ামী লীগ বেকায়দায় থাকলেও বিএনপি সেই সুবিধাকে কাজে লাগানোর জন্য মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। আওয়ামী লীগকে আওয়ামী লীগ দিয়ে মোকাবেলার কৌশল যেন সফল হয় সেব্যাপারে বিএনপি ভোটারদের নানাভাবে প্রভাবিত করার চেষ্টা চালাচ্ছেন। আওয়ামী লীগের খোদ কেন্দ্রীয় নেতার উপজেলায় বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় দলের তৃনমূল পর্যায়ের নেতাকর্মীরা পড়েছেন হতাশায়। আর সাধারণ ভোটারদের মাঝে এ নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে দ্বিধাদ্বন্দ্ব। ১৯ দলের একক প্রার্থী তাই নির্বাচনী ফসল ঘরে তোলার জন্য উঠে-পড়ে প্রচারাভিযান চলছে। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী তার প্রার্থীকে জয়যুক্ত করতে নেতাকর্মীরা মাঠে প্রচাররনা চালিয়ে যাচ্ছে।

এই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী রয়েছেন। এরা হচ্ছেন বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগদান কারী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ফরহাদ হাসান চৌধুরী ঈগলু (দোয়াত কলম), বিএনপি’র ফয়জুল আলম চৌধুরী বাবলু (মোটরসাইকেল), জাতীয় পার্টির দিনাজপুর জেলা যুব সংহতির সভাপতি এ্যাডঃ জুলফিকার হোসেন (আনারস) এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান বীর ভদ্র রায় (ঘোড়া)। ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিএনপি’র বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় আওয়ামী লীগ সুবিধা জনক অবস্থানে রয়েছেন। ৬ জন প্রার্থী নিজেদের বিজয়কে ঘরে তুলতে দিন-রাত চালাচ্ছেন তৎপরতা। এরা হলেন আওয়ামী লীগের মিজানুর রহমান (টিয়া পাখি), উপজেলা জামায়াতের আমীর মোঃ আমিনুল হক (মাইক), জাতীয় পার্টির মোঃ হুসেন মোল্লা (তালা), বিএনপি’র বিদ্রোহী এম ওয়ালি ফ্লাড (উড়ো জাহাজ), সিপিবি’র আজিজুল হক চৌধুরী (চশমা) এবং স্বতন্ত্র বিপ্লব কুমার ধর বিপু (টিউবওয়েল)। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী হলেন আওয়ামী লীগের পুতুল রানী রায় (হাঁস), বিএনপি’র নাজমুন নাহার মুক্তি (কলস), স্বতন্ত্র মুসলিমা বেগম (সেলাই মেশিন) এবং ফাতেমা বেওয়া (ফুটবল)।

আগামী ২৩ মার্চ অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ী ও বোচাগঞ্জ উপজেলার নির্বাচনকে ঘিরে উৎসব আর আনন্দের পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। ভোটাররা এবার ভেবে-চিন্তে তাদের রায় দিবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এই উপজেলায় মোট ভোটার ১ লক্ষ ৭ হাজার ৪৭১ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৫৩ হাজার ১৫৬ ও মহিলা ৫৪ হাজার ৩১৫ জন।##