ভালুকায় যুবদল কার্যালয়ে হামলা ভাংচুর আহত ১৫

moymonsinhaভালুকা (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা :
ভালুকায় যুবদল কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে দরজা-জানালা ও আসবাবপত্র ভাংচুর করা হয়েছে। এ সময় হামলাকারীরা ৪২ ইঞ্চি একটি এলইডি টেলিভিশন ও ১শত ৫০টি প্লাষ্টিকের চেয়ার নিয়ে যায়। হামলাকারীদের বেধরক মারপিটে উপজেলা যুবদল আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ, যুগ্ম আহবায়ক হেলাল ফকির, শেখ সাদী, সোলাইমান, মাজহার, হারুন, রতনসহ বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের ১৫ নেতা-কর্মী আহত হয়। পরে আহতরা বিভিন্ন বেসরকারী ক্লিনিকে চিকিৎসা নেয়।

হামলায় আহত যুবদল আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ জানান, কেন্দ্রীয় কর্মসূচী পালন শেষে তারা যুবদল কার্যালয়ে বিশ্রাম নিচ্ছিল। এ সময় উপজেলা বিএনপির সভাপতি ফখর উদ্দিন আহাম্মেদ বাচ্চুর ছোটভাই আবুল বাশার বেপারী, পৌর যুবদল সভাপতি তারেক উল্যাহ চৌধুরী ও যুবদল নেতা নুরুল হক মন্ডলের মদদপুষ্টে ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল হাসান পাঠান সাতিল ও মনিরুজ্জামান মামুন গ্রুপের নেতা-কর্মীরা যুবদল কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে বেধরক মারপিঠ করে দরজা-জানালা ও আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং একটি ৪২ ইঞ্চি এলইডি টেলিভিশন ও ১শত ৫০টি প্লাষ্টিকের চেয়ার নিয়ে গিয়ে কার্যালয়টি তালাবদ্ধ করে দেয়।

উপজেলা বিএনপির সভাপতি ফখর উদ্দিন আহাম্মেদ বাচ্চুর ছোটভাই আবুল বাশার বেপারী জানান, ওই ঘটনার সাথে তাদের কোন সম্পৃক্ততা নেই। বিষয়টি তারা পরে জানতে পেরেছেন।

ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল হাসান পাঠান সাতিল জানান, ঘটনাটি স্থানীয় বিএনপির দু’গ্রুপের আভন্তরীন বিষয়। এ বিষয়ে আমাদেরকে দোষারুপের কোন অবকাশ নেই।