খাগড়াছড়ি কমলছড়ি ইউনিয়নে মত বিনিময় সভা

OLYMPUS DIGITAL CAMERAখাগড়াছড়ি প্রতিনিধি :
খাগড়াছড়ি জেলা সদর উপজেলার কমলছড়ি গ্রামের গৃহবধু সবিতা চাকমা হত্যা ও ভূয়াছড়ি গুচ্ছ গ্রামের শহীদুল ইসলাম নিখোঁজ হওয়ার পর সৃষ্ট আদিবাসী ও সেটেলার বাঙ্গালীদের সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার এক মাস পর মহালছড়ি জোনের উদ্যোগে ভূয়াছড়ি আর্মি ক্যাম্প মাঠে আদিবাসী ও বাঙ্গালীদের নিয়ে এক মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার সকাল সাড়ে ১১ টায় মহালছড়ি সেনা জোনের উদ্যোগে ভূয়াছড়ি আর্মি ক্যাম্প মাঠে আদিবাসী ও পূর্ণবাসিত বাঙ্গালীদের নিয়ে আয়োজিত মত বিনিময় সভায় প্রশাসনের পক্ষে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন খাগড়াছড়ি আসনের এমপি কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা,চট্টগ্রাম ২৪ পদাদিক ডিভিশনের জিওসি মেজর জেনারেল মোঃ সাব্বির আহম্মেদ,খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ শামসুল ইসলাম,মহালছড়ি জোন কমান্ডার লে.কর্ণেল মোঃ শহীদুল ইসলাম,খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক মোঃমাসুদ করিম,সদর উপজেলা বর্তমান চেয়ারম্যান মোঃ শানে আলম ও নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান চঞ্চু মনি চাকমা,পৌর মেয়র রফিকুল আলম। কমলছড়ি এলাকাবাসী পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন কমলছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান সুপন চাকমা ও ইউপি সদস্য মোঃ শাহাজাহান ফরাজী। এছাড়া ও বিভিন্ন সরকারী ও বেসরকারী প্রতিষ্টানের কর্মকর্তাসহ কমলছড়ি ইউনিয়নের আদিবাসী ও বাঙ্গালীদের গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ এলাকাবাসীরা  উপস্থিত ছিলেন।

মত বিনিময় সভায় বক্তারা বলেন, কমলছড়ি ইউনিয়নে সৃষ্ট সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাটি ছিল খুবই অনাঙ্খাখিত একটি ঘটনা। সবিতা চাকমা হত্যা ও শহীদুল ইসলাম নিখোঁজের ঘটনাকে পুজি করে গুজব রটিয়ে একটি মহল রাজনৈতিক ফায়দা লুটার জন্য এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে বলে মন্তব্য করেন। বক্তারা আরো বলেন ঘটনা দিন ঘটনা অবগত হওয়ার সাথে সাথে প্রশাসনের পক্ষ থেকে দ্রুত পদক্ষেপ না নিলে পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ আকার ধারন করত বলে অনুমান করা হয়। এই জন্য উপস্থিত সবাই সকল নিরাপত্তা বাহিনীসহ প্রশাসনের সকলকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। ভবিষ্যতে যাতে এ ধরনের ঘটনা না ঘটে সবাইকে গুজবে কান না দেওয়ার জন্য এলাকাবাসীদের অনুরোধ করা হয়।

বক্তারা আরো বলেন সবিতা চাকমা হত্যা ঘটনাটা সত্য তবে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি মহল রাজনৈতিক ফায়দা লুটার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচী দিয়ে যেমনি ভূল করেছিল তেমনি বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ মিছিল নিয়ে কমলছড়ি গ্রামের ভিতর দিয়ে যাওয়াটা ছিল একটা বড় ভুল। দুই সম্প্রদায়ের মধ্যে এক শ্রেণির কুচক্রী মহল উদ্দেশ্য মূলক ভাবে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তাই এলাকাবাসীকে আইনের প্রতি শ্রদ্ধশীল হওয়ার ও পরামর্শ দেওয়া হয়।

জিওসি মেজর জেনারেল মোঃ সাব্বির আহম্মদ বলেন এখানে আমরা সবাই এক পরিবারের লোক সবাইকে মিলে মিশে কাজ করতে হবে। এক পরিবারে ভুল ত্রুতি থাকতেই পারে তাই বলে একটি ঘটনা ঘটলে এক অপরকে দোষারোপ করে সাম্প্রদাযিক ঘটনা ঘটানো এটা হতে পারে না। স্থানীয় প্রশাসনের বক্তব্য শুনে তিনি বলেন সবিতা চাকমা হত্যা ও শহীদুল ইসলাম নিখোঁজ এটা সত্য ঘটনা আর মূলত গুজবের কারনে ঘটনাটা একদূর ঘটেছে তাই সবাইকে গুজবে কান না দেওয়ার জন্য পরামর্শ দেন । গুজব জিনিটা আসলে বিপদ জনক ও অনেক ক্ষতিকর তাই এর থেকে সবাইকে দুরে থাকতে হবে। এবং শেষে বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন ধর্মীয় ও শিক্ষা প্রতিষ্টান উন্নয়নের জন্য প্রকল্প ও অনুদান বরাদ্ধ দেন।