‘১৯ দলকে পিলখানার স্মরণসভা করতে দেয়নি পুলিশ’

12706_fakrulবিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : পিলখানা ট্র্যাজেডিতে নিহত সেনা কর্মকর্তাদের স্মরণে ১৯ দল আয়োজিত স্মরণসভা  পুলিশ  করতে দেয়নি বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, নিহত সেনা কর্মকর্তাদের স্মরণে প্রতিবছরের মতো রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে একটি স্মরণসভার আয়োজন করেছিল ১৯ দল। এর জন্য গত ১৭ই ফেব্রুয়ারি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছে আবেদনও করা হয়েছিল। গত রাত পর্যন্ত ডিএমপি থেকে বলা হয়েছে,  এখনও সভার অনুমতি হয়নি, আশা করছি হয়ে যাবে। কিন্তু আজ বনানী কবরস্থানে নিহতদের শ্রদ্ধা জানানো শেষে ডিএমপি  আমাদের জানিয়েছে, স্মরণসভার অনুমতি দেয়া যাবে না। পুলিশের এ সিদ্ধান্তের নিন্দা জানান মির্জা আলমগীর। আজ বিকালে রাজধানী নয়াপল্টনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।  মির্জা আলমগীর বলেন, ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই জনগণের মৌলিক ও গণতান্ত্রিক অধিকার কেড়ে নিয়েছে। ৫ই জানুয়ারির নির্বাচনের আগে রাজধানীতে সব ধরনের সভা-সমাবেশে নিষিদ্ধ করে দেয়। এরপর থেকে আমাদের সভা-সমাবেশ করতে হলে ডিএমপিকে চিঠি দিয়ে অনুমতি নিয়ে হয়। তিনি বলেন, আমরা আশা করেছিলাম, সরকার এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা থেকে সরে আসবে। কিন্তু তারা জনগণের মৌলিক অধিকার হরণের জন্য সব  ধরনের কৌশল নিয়েছে।  এটা মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন বলে মন্তব্য করেন তিনি। মির্জা আলমগীর বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া সংবাদ সম্মেলনে পিলখানা ট্র্যাজেডির শোকবহ এই দিনে এশিয়া কাপের আড়ম্বরপূর্ণ উদ্বোধনী অনুষ্ঠান না করার আহ্বান জানিয়েছিলেন। কিন্তু সরকার তা না করে আড়ম্বরপূর্ণ নাচ-গানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করতে যাচ্ছে। আমরা মনে করি, এর মাধ্যমে ২৫শে ফেব্রুয়ারি শোকাবহ এই দিনটিকে  অশ্রদ্ধা জানানো হবে। সংবাদ সম্মেলনে কল্যাণ পার্টির সভাপতি মেজর জে. (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রিজভী আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।