‘বিচারবহির্ভুত হত্যাকান্ড দিয়ে জঙ্গিবাদ দমন হবে না’

12277_bdবিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : জঙ্গিবাদের হুমকি: বাংলাদেশ ভাবনা শীর্ষক আলোচনায় বক্তারা বলেছেন, বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের বাস্তবতা উপলদ্ধি করে সমাধানের জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে। বিচারবহির্ভুত হত্যাকান্ড ও গুমের মাধ্যমে জঙ্গিবাদ দমন সম্ভব হবে না। রাজধানীর রেডিসন হোটেলে শনিবার বাংলাদেশ সেন্টার ফর পিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট আয়োজিত আলোচনায় জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, আইন কমিশনের চেয়ারম্যান সাবেক প্রধান বিচারপতি এ বি এম খায়রুল হক, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এম আমীর-উল ইসলাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খন্দকার ইব্রাহীম খালেদ, প্রথম সেনাপ্রধান কেএম সফিউল্লাহ, নিরাপত্তা বিশ্লেষক ইশফাক এলাহী চৌধুরী, সাবেক নির্বাচন কমিশনার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সাখাওয়াত হোসেন, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বক্তব্য রাখেন। বিচারপতি খায়রুল হক বলেন, জঙ্গিবাদ মোকাবিলায় মানুষের মনোভাব পরিবর্তনে উদ্যোগ নিতে হবে। পৃথিবীতে কোনো ধর্ম জঙ্গিবাদকে সমর্থন করে না। তাহলে কিভাবে জঙ্গিবাদের সঙ্গে ধর্ম আসে, তা খতিয়ে দেখতে হবে। আইনে শাসন মেনেই এর সমাধান বের করতে হবে। গভর্নেন্স, জুডিশিয়াল ও ইনভেস্টিগেশনের সমস্যা দূর করতে হবে। গভর্নেন্স না থাকলে তা ইনভেস্টিগেশন ভালো হবে না, তার প্রভাব পড়বে বিচার পদ্ধতিতে। বিচার বহির্ভূত হত্যাকা- দিয়ে জঙ্গিবাদ দমন করা যাবে না। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, কেবল জঙ্গিবাদের উত্থানের কারণে বাংলাদেশের মানবাধিকার হুমকির মধ্যে রয়েছে। জঙ্গিবাদকে নির্মূল করাই এখন দেশের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। বিচারবহির্ভূত হত্যাকা- বা গুমের মাধ্যমে জঙ্গিবাদ নির্মূল সম্ভব নয়। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের ট্রাস্টি সরোয়ার আলী বলেন, শুধু বাংলাদেশ নয় সমগ্র উপমহাদেশে দুটি কারণে মূলত জঙ্গিবাদের উত্থান হয়। প্রথমত নিরাপত্তাজনিত কারণ এবং তারপর মৌলিক ভাবাদর্শগত পার্থক্যের কারণ। বাংলাদেশ এখন নিরাপত্তা আর ভাবাদর্শ ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। এ থেকে উত্তরণে শুধু সরকারের দিতে চেয়ে না থেকে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে তা মোকাবিলা করতে হবে।