ডোমারে অপহরনের ২১ দিনের মাথায় স্কুল ছাত্রী উদ্ধার : অপহরনকারী গ্রেফতার

nilfamariমোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন,ডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি ঃ নীলফামারীর ডোমার উপজেলায় অপহরনের ২১ দিনের মাথায় স্কুল ছাত্রী  মফেজা খাতুন (১৩) কে উদ্ধার করেছে পুলিশ । অপহরনকারী আমিনুরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

থানাসুত্রে জানা গেছে, ২২ ফেব্রুয়ারী শনিবার ভোরে উপজেলার কেতকীবাড়ি ইউনিয়নের দক্ষিন কেতকীবাড়ী পাঠারি পাড়া গ্রামের মোজাম্মেল হকের পুত্র ৩ সন্তানের জনক আমিনুর রহমানকে (৩৫) নিজ বাড়ি থেকে পুলিশ গ্রেফতার করে। এসময় অপহৃত সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী মফেজা খাতুন কে তার বাড়ী থেকে উদ্ধার করা হয়।

মামলার সুত্রে জানা গেছে, গত ১ ফেব্রুয়ারী উপজেলার কেতকীবাড়ি ইউনিয়নের পাঠারিপাড়া গ্রামের মোতালেব হোসেনের কণ্যা ও দক্ষিন কেতকীবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী মফেজা খাতুনকে তার বাড়ির পার্শ্ব থেকে মুখে কাপর বেধে একই এলাকার মোজাম্মেল হকের পুত্র ৩ সন্তানের জনক আমিনুর রহমান অপহরণ করে । এ ব্যপারে মফেজার পিতা মোতালেব বাদি হয়ে ডোমার থানায় নাশিনি মামলার ৭/৩০ ধারা মোতাবেক একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-০১

ডোমার থানার এসআই মোক্কারম হোসেনের নেতৃত্বে এক দল পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মফেজাকে উদ্ধার ও অপহরনকারী আমিনুর রহমানকে গ্রেফতার করে । শনিবার আদালতের মাধ্যমে অপহরন কারীকে জেলহাজতে প্রেরন করা হয়েছে।

এব্যাপারে উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জহুরুল হক দিপু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

থানার অফিসার্স ইনচার্জ কফিল উদ্দিন জানান, অপহৃত স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে পরিক্ষা-নিরিক্ষার জন্য ফরেনসিকে পাঠানো হয়েছে এবং অপহরনকারী আমিনুর রহমানকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। #