বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে বিশ্ব বাঙ্গালীকে একযোগে কাজ করতে হবে :ওয়েষ্ট লন্ডন আওয়ামীলীগ

west london awamileegমতিয়ার চৌধুরী ,লন্ডন প্রতিনিধিঃ বাঙ্গালীর আত্মত্যাগের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের জাতীয় শোক দিবস ২১ফেব্রুয়ারী এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। হাজার বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন, তারই সুযোগ্য কন্যা শেখ হাসিনার প্রচেষ্টায় ১৯৯৯ সালে  ইউনোস্ক কর্তৃক আমাদের জাতীয় শোক দিবস ২১ ফেব্রুয়ারীকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষনা করা হয়, এখানেই শেষ নয় বাংলাকে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে বিশ্ব বাঙ্গালীকে একযোগে কাজ করতে হবে। ওয়েষ্ট লন্ডন আওয়ামীলীগ আয়োজিত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের আলোচনা সভায় বক্তারা এঅভিমত ব্যাক্ত করে বলেন ১৯৯৯ সালে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের কুঠনৈতিক প্রচেষ্টার ফলে ২১ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে যেমন স্বীকৃতি পেয়েছে ঠিক তেমনি বিশ্বের সকল মাতৃভাষা সম্মানের আসনে অধিষ্ঠিত হয়েছে। বক্তারা বলেন মৌলবাদ এবং স্বাধীনতা বিরুধীরা আজও ভাষাকে সম্মান করতে শেখেনি স্বাধীনতা বিরুধীরা প্রবিত্র শহীদ মিনারে অগ্নিসংযোগ করে ভাষা শহীদদের অসম্মান করেছে। বক্তারা শহীদ মিনারে অগ্নিসংযোগ কারী মৌলবাদীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্থির দাবী জানিয়ে বলেন, ২১ ফেব্রুয়ারীতে প্রতিটি বাঙালী শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে শহীদ মিনারে সমবেত হয়। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বাঙালীদের প্রচেষ্টায় শহীদ মিনার প্রতিষ্টা করা হয়েছে শুধু বাঙ্গালী নয় বিশ্বের মানুষ আজ এই দিনটিতে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানাতে সমবেত হয়। বাংলাদেশের কয়েকটি মৌলবাদী রাজনৈতিক দলকে কোনদিনই শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে দেখা যায়নি। ২০১৩ সালে উগ্র তালেবান পন্থিরা শহীদ মিনারে অগ্নি সংযোগ করেছে। বক্তারা বাংলাদেশে উগ্রবাদের রাজনীতি নিষিদ্ধ করার দাবী জানান। গত ২০ ফেব্রুয়ারী বিকেলে নর্থ-ওয়েষ্ট লন্ডনের কুইন্সপার্কের সুন্দরবন রেষ্টুরেন্টে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপিত্ব করেন ওয়েষ্ট লন্ডন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রবাসে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আলহাজ্ব উস্তার আলী। ওয়েষ্ট লন্ডন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মাহবুর রহমান খোকন ও যুগ্মসম্পাদক সহিদুর রহমানের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক ছাত্র নেতা আব্দুল আহাদ চৌধুরী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের যুগ্মসম্পাদক সাংবাদিক গবেষক মতিয়ার চৌধুরী। আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের তাৎপর্য নিয়ে আলোকপাত করেন হাজী আব্দুল হান্নান, এ্যাডভোকেট মিসবাহ উদ্দিন ইকু, তারাউল ইসলাম, আশরাফ উদ্দিন, হিফজুর রহমান, হারুনুর রশিদ,  শামসুদ্দিন প্রমুখ।