9

‘ইউটিউব ভিউ নিয়ে মাথা ঘামানোর সময় নেই আমার’

বিডি রিপোর্ট 24 ডটকম : গানে এখন পুরোদমে ব্যস্ততা চলছে আসিফ আকবরের। বিশেষ করে নতুন গানে ব্যাপকভাবে সরব তিনি। তার গাওয়া ‘আগুন’ এখন পর্যন্ত চলতি বছরের সবচেয়ে শ্রোতাপ্রিয় গান। সব মিলিয়ে কেমন কাটছে দিনকাল? আসিফ আকবর উত্তরে বলেন, এই তো। বেশ ভালো আছি। দিনকালও ভালো যাচ্ছে। আপনি তো অসুস্থ ছিলেন। এখন কি অবস্থা? আসিফ হেসে বলেন, কাজের উপর থাকলে খুব ভালো থাকি। তাই টানা কাজ করছি এখন। ভালো আছি খুব। এভাবেই ব্যস্ততার মধ্যে দিয়ে কাটবে ঈদ পর্যন্ত। আপনার ‘আগুন’ গানটি বেশ প্রশংসিত হচ্ছে। এরপর আর নতুন গানের কি খবর? আসিফ বলেন, নতুন গান তো চলছেই। গত পাঁচ দিনে পাঁচটি গান প্রকাশ হয়েছে আমার। এর মধ্যে আমার, বালাম ও ইমরানের কন্ঠে ‘মুমিন হতে চাই’-এর ভিডিও প্রকাশ হয়েছে। প্রবাসীদের নিয়ে একটি গান করলাম। এখন থেকে প্রায় প্রতিদিনই আমার কোন না কোন গান প্রকাশ হবে। অনেক গান জমে আছে। নতুন গান করছি অনেক।  আজও(গতকাল) নতুন একটি গানে কন্ঠ দিয়েছি। আসলে আমি বসে থাকার মানুষ নই। প্রতি ঈদে আমার তিনটি করে একক অ্যালবাম প্রকাশ হতো। এখনতো আর সেই সময় নেই। ডিজিটালি গান প্রকাশ করছি একটা করে। একই রকম ব্যস্ততা যাচ্ছে আমার। সামনে ভিন্নরকম একটি চমকও আসছে। সেটি কি? খুলে বলবেন? আসিফ আগ্রহের সুরে বলেন, ডিজে গান করছি কিছু। গানগুলো করছে ডিজে রাহাত। তিনটি গান করবো। এর মধ্যে দুটি গানের কাজ প্রায় শেষ। এগুলো প্রকাশ হবে শিগগিরই। গানের জগতে প্রায় বিশ বছর পার করেছেন। এই সময়েও আপনি অডিওতে সবচেয়ে বেশি সম্মানী নিচ্ছেন গায়ক হিসেবে। এই সফলতার রহস্য কি? আসিফ হেসে বলেন, আমাকে শ্রোতারা ভালোবাসে এটাই আমার বড় শক্তি। আমি এক গানে দেড় লাখ টাকা সম্মানী নেই। এই সম্মানীতেই কোম্পানি গান করাচ্ছে আমাকে দিয়ে। অবশ্যই এই টাকাটা উঠে আসে বলেই গান করাচ্ছে, না হলেতো করাতো না। তবে কোন রহস্য নেই। আমি অন্য কোন কিছু চিন্তা করি না। কেবল গান করে যাই। নিজের কাজের প্রতি ভালোবাসাটা রয়েছে। এটাই একজন শিল্পীর মূল শক্তি। বর্তমানে গানের জগতে ইউটিউব ভিউ নিয়ে বেশ প্রতিযোগিতাই চলছে বলা যায়। কার কতো ভিউ সেটা নিয়ে জোর প্রচারণা চলছে। আপনি বিষয়টি কিভাবে দেখেন? আসিফ আতœবিশ্বাসের সুরে বলেন, আমি ইউটিউব ভিউ নিয়ে চিন্তা করি না। অনেক গান লাখ লাখ ভিউ হলেও সেটাকে শ্রোতাপ্রিয় গান বলা যাবে না। আবার অনেক গানের ভিউ কয়েক হাজার হলেও সেটা শ্রোতাপ্রিয় হতে পারে। সুতরাং ইউটিউব ভিউ নিয়ে মাথা ঘামানোর সময় নেই আমার। আমি কেবল আমার কাজই করে যাচ্ছি। গান করে যাচ্ছি। আর ইউটিউবতো কেবল একটি পোর্টাল মাত্র। এরকম আরো আড়াইশোর উপরে পোর্টাল রয়েছে। সেসব জায়গায় গান পৌঁছাতে হবে। তাহলেই ইন্ডাস্ট্রিটা একটা লাইনে আসবে। আপনার দৃষ্টিতে ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা এখন কেমন মনে হচ্ছে? আসিফ বলেন, এখন ডিজিটালি গান প্রকাশ হচ্ছে। সিডি মাধ্যম উঠে গেছে। সুতরাং আমরা এ বিষয়টিতে নতুন। সময় লাগবে। এখন আসলে কাজ করতে হবে ভবিষ্যতের জন্য। সামনে সুদিন অপেক্ষা করছে। এটা নিশ্চিত। আপনি গানের পাশাপাশি অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদেও সরব থাকেন সব সময়। এই বিষয়টি আপনার ভেতর কিভাবে এলো? আসিফ হেসে বলেন, এটাতো আসলে প্রত্যেক মানুষের উপর ভেরি করে। সবাই হয়তো বলে না কিন্তু ফিল করে ঠিকই। আর আমি বলি। আসলে সত্যি বলাতে তো ভয় পাবার কিছু নেই। দূর্বলতা থাকলে হয়তো ভয় থাকে। আমার মধ্যে সেই দূর্বলতা নেই। অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা আগেও বলেছি, এখনও বলছি, সামনেও বলবো।